kalerkantho


উন্নয়ন সফলতার জাদুরকাঠি হচ্ছে কর্মক্ষম জনগোষ্ঠী : পরিকল্পনামন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ অক্টোবর, ২০১৬ ১৯:১৫



উন্নয়ন সফলতার জাদুরকাঠি হচ্ছে কর্মক্ষম জনগোষ্ঠী : পরিকল্পনামন্ত্রী

পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন সফলতার জাদুরকাঠি হচ্ছে কর্মক্ষম তরুণ জনগোষ্ঠী। একটি জাতির সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার অন্যতম উপাদান হচ্ছে মানব সম্পদ আর এই মানব সম্পদ উন্নয়নে যথাযথ পরিকল্পনার ফলে দেশে শতকরা ৯৮ ভাগ ছেলে -মেয়ে স্কুলমুখি হয়েছে।


তিনি বলেন, দেশের শতকরা ১০ভাগ তরুণ কারিগরি শিক্ষা গ্রহণ করেছে, যা গত ৮ বছর আগেও শতকরা একভাগেরও কম ছিল। মানব সম্পদ উন্নয়নে বিদ্যমান ব্যবস্থা অব্যহত থাকলে ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে জ্ঞানভিত্তিক একটি অর্থনীতির দেশ।
আজ ঢাকায় গান্ধী আশ্রম ট্রাস্ট আয়োজিত ‘মহাত্মা গান্ধীর ১৪৭তম জন্মজয়ন্তী এবং সমাজ পরিবর্তনে যুব সমাজের ভূমিকা ও গান্ধী দর্শন শীর্ষক’ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
গান্ধী আশ্রম ট্রাস্টের সভাপতি ড. দেবপ্রিয় ভট্রাচার্য’র সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে ভারতের হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, বাংলাদেশে বৃটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেক এবং ইউএনডিপি বাংলাদেশ অফিসের কান্ট্রি ডিরেক্টর নিক বেরেসফোর্ড প্রমুখ।
পরিকল্পনা মন্ত্রী মুস্তফা কামাল আরো বলেন, গান্ধী ছিলেন একজন মহান দার্শনিক। তিনি নারীর ক্ষমতায়ন , শিক্ষা বিস্তার এবং দারিদ্র বিমোচনে সমাজের অবহেলিত ও বঞ্চিত শ্রেণির মানুষদের সাথে নিয়ে অহিংস সংগ্রাম করেছেন। তিনি প্রায় শত বছর আগে উপলব্ধি করেছিলেন যে, মানব সম্পদ উন্নয়ন ছাড়া জাতীয় উন্নয়ন সম্ভব নয়। মন্ত্রী উদাহরণ দিয়ে আরো বলেন গান্ধির নিজের হাতে চরকা দিয়ে কাপড় বুনে কুমিল্লায় খাদি শিল্পের যে যাত্রা শুরু করেছিলেন, তা মানব সম্পদ উন্নয়নে অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে কাজ করছে।
পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, ২ কোটি ৯০ লাখ কর্মক্ষম মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা আমাদের সবচেয়ে বড় কাজ। তাই সরকারের পরিকল্পনা হচ্ছে দেশের প্রতিটি মানুষকে উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার।


মন্তব্য