kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পানি ব্যবস্থাপনায় ঢাকার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাবে কাঠমান্ডু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ অক্টোবর, ২০১৬ ১৯:০৮



পানি ব্যবস্থাপনায় ঢাকার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাবে কাঠমান্ডু

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর পানি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ‘কাঠমান্ডু উপত্যকা খানেপানি লিমিটেড’ (কেইউকেএল) ঢাকা পানি সরবরাহ পয়:নিস্কাশন কর্তৃপক্ষের (ডিওয়াসা) সাথে দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করবে।
পানি ব্যবস্থাপনায় বিশেষজ্ঞ জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের লক্ষ্যে খুব শিগগিরই দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে বলে বাসস’কে জানিয়েছেন ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী তাকসিম এ. খান।


তিনি বলেন, চুক্তি অনুসারে কাঠমান্ডু নগরীতে পানির ‘পদ্ধতিগত ক্ষতি’ কমিয়ে আনতে ‘ডিস্ট্রিক্ট মিটারড এরিয়া’ (ডিএমএ) প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ‘কেইউকেএল’ কে বিশেষজ্ঞ সহায়তা দিবে ঢাকা ওয়াসা।
প্রকৌশলী তাকসিম এ. খান বলেন, ‘ডিএমএ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ঢাকা মহানগরীতে পানির পদ্ধতিগত ক্ষতি কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে ঢাকা ওয়াসা ব্যাপক সাফল্য লাভ করেছে’।
তিনি জানান, কেইউকেএল-এর কর্মীদের প্রশিক্ষন দেওয়ার জন্য ঢাকা ওয়াসার প্রকৌশলীরা নেপালে যাবেন। অন্যদিকে, মাঠ পর্যায়ে পানি ব্যবস্থাপনার জ্ঞান লাভের জন্য নেপালি প্রতিষ্ঠানটির কয়েকজন কর্মী ঢাকায় আসবেন।
ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, শুধু কাঠমান্ডুৃই নয়, ভারতের জয়পুর এবং শ্রীলঙ্কার কলম্বোর পানি ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষগুলোও ‘ডিএমএ’ প্রতিষ্ঠায় ঢাকার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়েছে।
তিনি বলেন, ঢাকা ওয়াসার ১৪৫টি ‘ডিএমএ’ চালুর পরিকল্পনা রয়েছে এবং এশিয় উন্নয়ন বোর্ডের (এডিবি) অর্থায়নে একটি প্রকল্পের পর্যায়ে ইতিমধ্যেই ঢাকায় ৪৭টি ‘ডিএমএ’ চালু করা হয়েছে।
তিনি জানান, ‘ডিএমএ’ পদ্ধতিতে পদ্ধতিগত ক্ষতি ১৫ শতাংশের নিচে নেমে আসে, এমনকি কোন কোন ক্ষেত্রে তা ৫-৭ শতাংশে পর্যন্ত নেমে আসে। যদিও ‘ডিএমএ’ ছাড়া পদ্ধতিগত ক্ষতি ২২ শতাংশ পর্যন্ত হতে পারে।


মন্তব্য