kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'সন্তানরা যাতে বাবা-মায়ের দায়িত্ব নিতে বাধ্য থাকে তা নিশ্চিত করতে হবে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:৩৩



'সন্তানরা যাতে বাবা-মায়ের দায়িত্ব নিতে বাধ্য থাকে তা নিশ্চিত করতে হবে'

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান বলেছেন, সন্তানরা যাতে তাদের বৃদ্ধ বাবা-মায়েদের দায়িত্ব নিতে বাধ্য থাকে তা নিশ্চিত করতে হবে।
আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস উপলক্ষে আজ ১ অক্টোবর সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি ব্লকের ১৭ তলায় ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের ক্লাসরুমে একটি বৈজ্ঞানিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।


তিনি বলেন, গড় আয়ু বেড়ে যাওয়ার কারণে প্রবীণদের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। প্রবীণদের সকল ধরণের অধিকার নিশ্চিত করা আমাদের সকলেরই দায়িত্ব। প্রয়োজনে আইন করে হলেও সন্তানরা যাতে তাদের বৃদ্ধ বাবা-মায়েদের দায়িত্ব নিতে বাধ্য থাকে তা নিশ্চিত করতে হবে।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবীণদের চিকিৎসার জন্য বিশেষ সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত চিকিৎসাসেবা ব্যবস্থা চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রো-ভাইস-চ্যান্সেলর (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মোঃ শহীদুল্লাহ সিকদার, প্রো-ভাইস-চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ, প্রো-ভাইস-চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. এএসএম জাকারিয়া (স্বপন)। স্বাগত বক্তব্য রাখেন মেডিসিন অনুষদের ডীন অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. মোঃ আব্দুর রহিম। বৈজ্ঞানিক নিবন্ধ উপস্থাপন করেন জেরিয়াট্রিক মেডিসিন উইং প্রধান অধ্যাপক ডা. মোঃ জিলন মিঞা সরকার। ‘আমাদের পথচলা’ শীর্ষক প্রামাণ্য উপস্থাপনা করেন সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ তানভীর ইসলাম। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোঃ রফিকুল আলম।
বৈজ্ঞানিক সম্মেলন শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি ব্লকের সামনে থেকে ‘প্রবীণদের প্রতি বৈষম্যের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান’ শীর্ষক স্লোগান নিয়ে একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন অংশ প্রদক্ষিণ করে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রো-ভাইস-চ্যান্সেলর (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মোঃ শহীদুল্লাহ সিকদার বলেন, প্রবীণদের প্রতি আমাদের সকলেরই ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি থাকা আবশ্যক। এ জন্য জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে।
প্রো-ভাইস-চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রবীণদের প্রতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসন অত্যন্ত আন্তরিক। প্রবীণদের জন্য বরাদ্দকৃত মেডিক্যাল এলাউয়েন্স (চিকিৎসা ভাতা) বৃদ্ধি করা উচিত। প্রয়োজনে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা দেয়া যায় কি না তা নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করা উচিত। যানবাহনে প্রবীণদের জন্য সংরক্ষিত আসন থাকা আবশ্যক।
প্রো-ভাইস-চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. এএসএম জাকারিয়া (স্বপন) বলেন, প্রবীণদেরকে কোনো ধরণের অবেহেলা করা যাবে না। প্রবীণদের প্রতি বৈষম্যের বিরুদ্ধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়তে হবে।


মন্তব্য