kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


শেখ হাসিনা বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ বাঁচবে : রেলমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:৪৩



শেখ হাসিনা বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ বাঁচবে : রেলমন্ত্রী

রেলপথমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেছেন, শেখ হাসিনা বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ বেঁচে থাকবে। অব্যাহত থাকবে দেশের প্রগতি ও শোষণমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার।

আওয়ামী লীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশ তাঁতীলীগ আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, শেখ হাসিনা দেশ ও মানুষের প্রতি যে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছিলেন তা অক্ষরে অক্ষরে পালন করে চলেছেন। দেশের সার্বিক উন্নয়নে তার যে অবদান তা বলে শেষ করা যাবে না। জঙ্গিবাদে নির্মূলে তিনি বিশ্বের কাছে দৃষ্টান্ত হয়ে আছেন। বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের স্বীকৃতি স্বরূপ তিনি যে আন্তর্জাতিক সম্মাননা ও পুরস্কার পেয়েছেন সেটাই প্রমাণ করে বিশ্বে তার অবস্থান কী।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সংগীত, নৃত্য ও আবৃত্তি কেন্দ্র মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এই আয়োজনে তাঁতীলীগের আহ্বায়ক এনাজুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের মহাসচিব ডা. এম এ আজীজ। বক্তব্য প্রদান করেন তাঁতীলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শাহে আলম মুরাদ বলেন, আজ এমন একজন মহান নেতার জন্মদিন যার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ তথা দেশের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে বৈপ্লবিক ভূমিকা রাখছে। তাঁর জন্মদিনে শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও অভিবাদন জানাই। আমরা বিশ্বাস করি শেখ হাসিনা এক অবিচল দূরদর্শী নেতৃত্বের নাম। তাই বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য তার বিকল্প নাই।

সভাপতির বক্তব্যে এনাজুর রহমান চৌধুরী বলেন, ৩৬ বছর ধরে একটি দলের সভানেত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন। কতটুকু আস্থাভাজন ও বিচক্ষণ হলে এতদিন কৃতিত্বের সাথে দেশের বৃহত্তর একটি দলকে পরিচালনা করা যায়। আমার বিশ্বাস করতে ভালো লাগে যে জাতির জনক একটি রাষ্ট্রের জন্ম দিয়েছেন আর দেশরত্ন শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে একটি আধুনিক রাষ্ট্রে পরিণত করেছেন। আলোচনা শেষে ৭০তম জন্মদিনের কেক কাটা হয় এবং শিল্পকলা থেকে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি আওয়ামী লীগ কার্যালয় প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়।

প্রসঙ্গত, শেখ হাসিনার জন্মদিন ২৮ সেপ্টেম্বর। এ উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে তাঁতীলীগ।

 


মন্তব্য