kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'জঙ্গিদের সন্ত্রাসী কার্যকলাপ বাস্তবায়ন করতে দেয়া হবে না'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:১৯



'জঙ্গিদের সন্ত্রাসী কার্যকলাপ বাস্তবায়ন করতে দেয়া হবে না'

এলিট ফোর্স র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ জঙ্গিবাদকে বিজাতীয় সংস্কৃতির অংশ হিসেবে অভিহিত করে বলেছেন,বাংলাদেশের মাটিতে জঙ্গিদের সন্ত্রাসী কার্যকলাপ ও অসুস্থ চিন্তা-চেতনা বাস্তবায়ন করতে দেয়া হবে না।
তিনি বলেন, আইন-শৃংখল রক্ষাকারী বাহিনীর অব্যাহত তৎপরতায় জঙ্গিদের সাংগঠনিক অবস্থা এখন নাজুক হয়ে পড়েছে।

বর্তমানে তাদের বড় ধরনের আক্রমণ করার সক্ষমতাও নেই।  
বেনজীর আহমেদ বলেন, জঙ্গি দমনে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী’র বিশেষ করে র‌্যাবের ভূমিকা আন্তর্জতিক অঙ্গনে ভূয়সী প্রশংসা অর্জন করেছে।
তিনি আজ রাজধানীর তেজগাঁওয়ে সাউথ-ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এ বিশ্ববিদ্যলিয়ে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের ‘ফ্রেশার্স রিসিপশন এন্ড ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।
সাউথ-ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএফএম মফিজুল ইসলামের সভাপতিত্বে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে উপ- উপাচার্য অধ্যাপক ড. হুমায়ুন কবীর চৌধুরী এবং রেজিষ্ট্রারসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিনরা বক্তব্য রাখেন।
র‌্যাবের ডিজি বলেন, ‘এ দেশ আমার, আপনার, সকলের। তাই গুটিকয়েক জঙ্গি দেশটাকে ধ্বংস করে দিতে পারবে না। প্রয়োজনে ইঞ্চি-ইঞ্চি মাটি খুঁড়ে তাদের খুঁজে বের করা হবে। ’ যে কোন মূল্যে জঙ্গিদের নিশ্চিহ্ন করা হবে বলেও তিনি দৃঢ়মনোভাব প্রকাশ করেন।
এ দেশে রাজাকারদের যেমন প্রয়োজন নেই, তেমনি জঙ্গিদেরও প্রয়োজন নেই উল্লেখ করে বেনজীর আহমেদ বলেন, জঙ্গিদের মানুষ ঘৃণা করে। জঙ্গি হওয়ার কারণে পিতামাতা তাদের আদরের সন্তানদের লাশ পর্যন্ত গ্রহণ করেনি। এমনকি তাদের জানাজা করার জন্যও কেউ আসেননি।
র‌্যাব ডিজি বলেন ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলামে জঙ্গিবাদের কোন স্থান নেই। এ দেশে সুফিবাদের মাধ্যমে ধর্মের প্রচার হয়েছে। ইসলাম ধর্মে খুনাখুনি ও রক্তের স্থান নেই। ইসলামের নামে যারা সন্ত্রাসী হামলা চালায়, মানুষ খুন করে- তারা ইসলামের শত্রু।


মন্তব্য