kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সুপ্তি সমাপ্তির জন্য কাঁদছে স্বজন, কাঁদছে এলাকাবাসীও

কুদ্দুস বিশ্বাস, রৌমারী (কুড়িগ্রাম)   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২০:৩১



সুপ্তি সমাপ্তির জন্য কাঁদছে স্বজন, কাঁদছে এলাকাবাসীও

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে গোলাম হোসেন (৩০) ও শিল্পী খাতুন (২৪) দম্পতি নির্মম খুন হওয়ার পর তাদের ঘরে অবুঝ দুই বোনের ভবিষ্যত অন্ধকারে ঢেকে গেল। ফুটফুটে দুই মেয়ের ভবিষ্যত নিয়ে অনিশ্চিয়তা দেখা দিয়েছে।

তাদের ভাগ্যে এখন কী ঘটবে, ভরণপোষণের খরচ বা লেখাপড়ার খরচ কে দিবে? এমন প্রশ্নে কাঁদছে স্বজনরা, কাঁদছে এলাকাবাসীও।
সুপ্তি খাতুনের বয়স ৭ বছর পার হয়েছে। ৩য় শ্রেণিতে লেখাপড়া করে সে। আর সমাপ্তির বয়স ৫ বছর। যে বয়সে মা বাবা’র কোলে বড় হওয়ার কথা সেই বয়সে তারা মা বাবাকে হারালো। একই সঙ্গে তাদের জীবনে অন্ধকারে ঢেকে গেল। ভবিষ্যতে তাদের কি হবে, ভাগ্যে লেখাপড়া জুটবে কিনা, কে দিবে তাদের খরচ ভরনপোষন। এসব অবুঝ দুই বোন জানে না, জানে না তাদের স্বজন ও এলাকাবাসিও। তাদের করুন দৃশ্য দেখে মায়ায় চোখ মুছছে সবাই। মা বাবা চলে যাওয়ার পর নিষ্পাপ দুই বোন এখন নানীর কাছে রয়েছে।
এদিকে আজ মঙ্গলবার সুপ্তি সমাপ্তির নানীর বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে অসংখ্য নারী পুরুষ ভিড় করছে বাড়িতে। তাদের অনিশ্চিত ভবিষ্যত নিয়ে নানা নানীও আশংকা প্রকাশ করছেন। নানী মিলন মালা বলেন, ‘এখন তো নিষ্পাপ দুই শিশু এতিম হইয়া গেল। মা বাবা ছাড়া তাদের জীবন অন্ধকার। বাচ্চা দুইডাক নিয়া দুই চোখে অন্ধকার দেখছি। তাগরে থাকা খাওয়া, পড়াশোনা এখন দেখবে কে। এ দুনিয়াত বাবা মা ছাড়া কোনো মূল্যই নাই। তারওপর তারা দু’জনই অবুঝ। কিছু বোঝে না। সহায় সম্পদ বলতে কিছুই নেই। স্বজনরা আর কয়দিন দেখবে। কিছুদিন যাওয়ার পর সবাই সব ভুলে যাবে। তখন বাচ্চা দুইডা অসহায় হয়ে পড়বে। ’
নানা আব্দুস ছাত্তার বলেন, ‘আমার দুই নাতির দিকে তাকালে মনে হয় দুনিয়াতে নেই আমি। এত সুন্দর বাচ্চা দুইডার যারা বুক খালি করে দিল দুনিয়াতেই যেন তাদের বিচার হয়। আমি যতদিন বেঁেচ থাকব ততদিন হয়তো তাদের লেখাপড়ার খোঁজ নিতে পারব। কিন্তু এরপর? এখনও দুই বোন কথা বলতে পারে না। মা বাবা’কে হারিয়ে তারা যেন বোবা হয়ে গেছে। ’ 
দাদী বাছাতন বেওয়া বলেন, ‘আমরা বিপদে পড়ছি বাচ্চা দুইডাক নিয়া। তারা তো এহন এতিম। তাগরে থাকা খাওয়া, পড়াশোনা এহন দেখবে কে। এ দুনিয়াত বাবা মা ছাড়া সন্তানরা মানুষ হবো কিভাবে। তাছাড়া তাদের সহায় সম্পদ বলতে কিছু নেই। ’ 
উল্লেখ্য যে, রৌমারী উপজেলার বাইটকামারী গ্রামের বাসিন্দা গোলাম হোসেন ও শিল্পী খাতুনকে নিমর্মভাবে হত্যা করে ঘাতকরা। থানা পুলিশ সোমবার সকালে তাদের ঘর থেকে দম্পতির লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হলেও পুলিশ এখনও অভিযুক্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।


মন্তব্য