kalerkantho


হিজড়া নেতার খুনিদের গ্রেপ্তারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:০৮



হিজড়া নেতার খুনিদের গ্রেপ্তারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

জামালপুরের ইসলামপুরে বাংলাদেশ হিজড়া কল্যাণ ফাউন্ডেশনের জেনারেল কমিটির সহসভাপতি হায়দারকে বাড়িতে ঢুকে কুপিয়ে খুন করে দুর্বৃত্তরা। গত ১৪ সেপ্টেম্বরের এই ঘটনার পর ৩ দিন পার হলেও কেউ গ্রেপ্তার না হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন হিজড়া সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা।

খুনিদের গ্রেপ্তারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছে বাংলাদেশ হিজড়া কল্যাণ ফাউন্ডেশন।

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আবিদা সুলতানা মিতু এই আবেদন জানান। মানববন্ধন শেষে শতাধিক হিজড়া মিছিল নিয়ে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে হিজড়া কল্যাণ ফাউন্ডেশনের কার্যালয়ে যান।

মানববন্ধনে আবিদা সুলতানা বলেন, “হায়দার হিজড়াকে গ্রামের বাড়িতে সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে হত্যা করেছে। এখনও খুনিরা গ্রেপ্তার হয়নি। আমরা বিচার পাচ্ছি না। তাহলে তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে সরকার আমাদেরকে কেন স্বীকৃতি দিল? আমরা খুনিদের অবিলম্বে খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। এ ব্যাপারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করছি, যাতে তিনি যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। ”

একজন বক্তা অভিযোগ করে বলেন, “ভয়ংকর অপরাধীরা হিজড়া সেজে হত্যা-ধর্ষণ-চাঁদাবাজি-ছিনতাই-অস্ত্র-মাদক-পতিতা বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে। এখন হায়দার হিজড়া যে সম্পত্তি রেখে গেছেন তার লুটপাটেরও অপচেষ্টা চলছে। এই সব অপকর্ম কোনোভাবে মেনে নেওয়া হবে না। ”

বাংলাদেশ হিজড়া কল্যাণ ফাউন্ডেশনের জেনারেল কমিটির সহসভাপতি হায়দার হিজড়া রাজধানীর মগবাজারে হিজড়া গোষ্ঠীর 'গুরু মা' হিসেবেও দায়িত্বরত ছিলেন। সেটা উল্লেখ করে আনুড়ি হিজড়া বলেন, “সরকার একদিকে বলে আমরা তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে স্বীকৃত জনগোষ্ঠী। অথচ তিন দিন হয়ে গেল আমাদের গুরু মা হায়দার হিজড়ার হত্যাকারীরা ধরা পড়লো না। ”


মন্তব্য