kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মন্ট্রিলের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর লন্ডন ত্যাগ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২১:২৭



মন্ট্রিলের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর লন্ডন ত্যাগ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২২ ঘণ্টা যাত্রাবিরতির পর এয়ার কানাডার একটি ফ্লাইটযোগে কানাডার কুইবি প্রদেশের মন্ট্রিলের উদ্দেশ্যে লন্ডন ত্যাগ করেছেন।
স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ৪০ মিনিটে এয়ার কানাডার ফ্লাইট এসি-৮৬৫ হিথ্রো বিমানবন্দর ত্যাগ করে।

এ সময় যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার খন্দকার মোহাম্মদ তালহা এবং প্রবাসী বাংলাদেশিরা প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান।
ফ্লাইটটি স্থানীয় সময় বিকেল সোয়া ৪টায় মন্ট্রিলের পিয়েরে ইলিয়ট ট্রুডো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছার কথা।
কানাডার একজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এবং অটোয়ায় বাংলাদেশের হাইকমিশনার মিজানুর রহমান বিমানবন্দরে তাঁকে অভ্যর্থনা জানাবেন।
শেখ হাসিনা মন্ট্রিলে ফিফ্থ রিপ্লেনিশমেন্ট কনফারেন্স অব দ্য গ্লোবাল ফান্ড (জিএফ) এবং নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে যোগদানের জন্য ১১ দিনের কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্র সফরে গতকাল ঢাকা ত্যাগ করেছেন। সম্মেলনের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নেবেন এবং কয়েকজন আন্তর্জাতিক নেতার সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন।
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর আমন্ত্রণে মন্ট্রিলে তাঁর চারদিনের সরকারি সফরকালে ফিফ্্থ রিপ্লেনিশমেন্ট কনফারেন্স অব দ্য গ্লোবাল ফান্ড (জিএফ)-এ অংশ নেবেন।
১৬ ও ১৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় এই সম্মেলন ২০৩০ সালের মধ্যে বিভিন্ন ঘাতক ব্যাধির ব্যাপক বিস্তার রোধে আরো বেশি কার্যক্রম গ্রহণে বিশ্ব স্বাস্থ্য বিষয়ক নেতৃবৃন্দকে এক মঞ্চে নিয়ে আসবে।
জিএফ হচ্ছে- এইডস, যক্ষ্মা ও ম্যালেরিয়া প্রতিরোধ এবং চিকিৎসা কার্যক্রম সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক অর্থায়ন সংস্থা।
শেখ হাসিনা ১৬ সেপ্টেম্বর রিপ্লেনিশমেন্ট কনফারেন্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। পরে তিনি অন্যান্য রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের সঙ্গে সম্মেলনের মিনিস্ট্রিয়াল প্লিজিং মোমেন্ট ও আনুষ্ঠানিক সংবর্ধনায় যোগদান করবেন। তিনি হায়াত রিজেন্সি মন্ট্রিলে কানাডার প্রধানন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো’র আমন্ত্রণে আনুষ্ঠানিক নৈশভোজে অংশ নেবেন।
শেখ হাসিনা ১৭ সেপ্টেম্বর ‘রিমোভিং বেরিয়ার্স টু হেলথ থ্রো এমপাওয়ারিং উইমেন এন্ড গার্লস এন্ড রিচিং দ্য মোস্ট মার্জিনালাইজড’ ও ‘এনগেজিং এন্ড মোবিলাইজিং ইয়ুথ টু মিট দ্য সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোলস’ শীর্ষক দু’টি প্যানেল আলোচনায়ও অংশ নেবেন।
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী কানাডার প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো’র সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হবেন এবং তার হাতে ‘ফ্রেন্ডস অব লিবারেশন ওয়্যার অনার’ পুরস্কার হস্তান্তর করবেন। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালে দ্ব্যর্থহীন সমর্থন ও অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার কানাডার তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পিয়েরে ট্রুডোকে (জাস্টিন ট্রুডো’র পিতা) মরণোত্তর এই পুরস্কার প্রদান করে।
শেখ হাসিনা ১৮ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশন ও অন্যান্য কর্মসূচিতে যোগদানের জন্য এয়ার কানাডার একটি ফ্লাইটযোগে নিউইয়র্কের উদ্দেশ্যে মন্ট্রিল ত্যাগ করবেন।


মন্তব্য