kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রাজধানীতে কোথায় কখন ঈদ জামাত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:০৯



রাজধানীতে কোথায় কখন ঈদ জামাত

ফাইল ছবি

যথাযথ মর্যাদা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত হবে।
মুসলিম সম্প্রদায়ের ধর্মীয় দ্বিতীয় বৃহত্তম এ উৎসবে রাজধানীর মুসুল্লিরা যাতে নির্বিঘ্নে নামাজ আদায় করতে পারেন, সে লক্ষ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন বিভিন্ন ঈদগাহ, খেলার মাঠ ও মসজিদে ঈদ জামাত আদায়ের সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।


জাতীয় ঈদগাহসহ রাজধানীর দুই সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ৪ শতাধিক ঈদ জামাতের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ঈদুল আজহার ২২৮টি এবং উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ১৮০টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
সকাল ৮টায় ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে জাতীয় ঈদগাহে। এখানে সুশৃঙ্খলভাবে নামাজ আদায়ের জন্য সার্বিক নিরাপত্তাসহ সকল ধরণের প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। মুসল্লিরা যাতে নির্বিঘ্নে নামাজ আদায় করতে পারেন সে জন্য কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।
ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন অঞ্চল-১ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা বেগম শাহিনা খাতুন বলেন, জাতীয় ঈদগাঁহে ঈদ জামাত আয়োজনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে পুরো মাঠ জুড়ে বাঁশের কাঠামোর উপর ত্রিপোল ও সামিয়ানা টাঙ্গানো, সর্বত্র সিসি ক্যামেরা ও নিরাপত্তা বাহিনীর ওয়াচ টাওয়ার স্থাপনের কাজও সম্পন্ন হয়েছে। প্রায় দু’শ মুসুল্লি যেন একসঙ্গে অজু করতে পারে, সে লক্ষ্যে ওজুখানার প্রস্তুতিও সম্পন্ন হয়েছে বলে তিনি জানান।
তিনি আরো বলেন, আবহাওয়া প্রতিকুল হলে ঈদের এ প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে।
জাতীয় ঈদগাহে ৫ হাজার মহিলা মুসল্লি¬সহ লক্ষাধিক মুসল্লির নামাজ আদায়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে উল্লেখ করে এ কর্মকর্তা জানান, মুসল্লিদের নামাজ আদায়ের সুবিধার্থে বসার জায়গা, ওজু ও মোবাইল টয়লেটের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। বিদেশী মুসলিম রাষ্ট্রের কুটনীতিকবৃন্দের জন্যও জাতীয় ঈদগাহে নামাজ আদায়ের ব্যবস্থা রয়েছে।
এবার জাতীয় ঈদগাহের এ নামাজে ইমামতি করবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান। বিকল্প ইমাম থাকবেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদেরই আরেক পেশ ইমাম মাওলানা মহিউদ্দিন কাসেম।
পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে পর্যায়ক্রমে ৫টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাত সকাল ৭টায়, দ্বিতীয় জামাত সকাল ৮টায়, তৃতীয় জামাত সকাল ৯টায়, চতুর্থ জামাত সকাল ১০টায় এবং পঞ্চম ও শেষ জামাত সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে।  
প্রথম জামাতে বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী, দ্বিতীয় জামাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুহাদ্দিস মাওলানা ওয়ালীয়ুর রহমান খান, তৃতীয় জামাতে মহাখালী হোসাইনিয়া কামিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল ড. মাওলানা নজরুল ইসলাম আল মা‘রূফ, চতুর্থ জামাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুফতী মাওলানা মোহাম্মদ আবদুল্লাহ এবং পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহকারী পরিচালক হাফেজ মাওলানা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইমামতি করবেন।
সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ঈদুল আযহার নামাজ আদায়ের জন্য মুসল্লীদের সুবিধার্থে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে পর্যাপ্ত পানি ও নিশ্চিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।  
জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের উদ্যোগে সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় সকাল সাড়ে ৭টায় ঈদের নামাজ আদায়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ধানমন্ডি সোবহানবাগ জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায় ঈদুল আযহার জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদ, মসজিদুল জামিআয় ঈদের দু’টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাত সকাল ৮টায় এবং দ্বিতীয়টি সকাল ৯টায় অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাতে ইমামতি করবেন কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম খতীব হাফেজ নাজীর মাহমুদ এবং দ্বিতীয় জামাতে ইমামতি করবেন হাফেজ উসায়দ আহমাদ।
কেন্দ্রীয় মসজিদ ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হল মেইন গেইট সংলগ্ন মাঠ এবং শহীদুল্লাহ হল লনে সকাল ৮টায় ঈদুল আজহার পৃথক আরো দু’টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে।


মন্তব্য