kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মহাসড়কগুলো যানজটমুক্ত রাখার পরামর্শ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৩২



মহাসড়কগুলো যানজটমুক্ত রাখার পরামর্শ

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় পবিত্র ঈদ-উল- আযহা উপলক্ষ্যে ঘরমুখো মানুষের নিরাপদ যাতায়াত নিশ্চিতকরণ এবং মহাসড়কগুলো যানজটমুক্ত রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট বিভাগকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
সংসদ ভবনে আজ কমিটি সভাপতি মোঃ একাব্বর হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ পরামর্শ দেয়া হয়।


কমিটির সদস্য রেজওয়ান আহম্মদ তৌফিক, নাজমুল হক প্রধান, লুৎফুন নেছা এবং নাজিম উদ্দিন আহমেদ সভায় অংশগ্রহণ করেন।
সভায় পবিত্র ঈদ-উল- আযহা উপলক্ষে মহা সড়ক যানজটমুক্ত রাখা এবং বিআরটিসির বাস নির্বিঘ্নে চলাচল ও যাত্রী সেবা নিশ্চিতকরণ বিষয়ে মন্ত্রণালয় কর্তৃক গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।  
সভায় জানানো হয়, পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে সড়ক পথে যাতায়াতকারী যাত্রী সাধারণের চলাচল নির্বিঘ্নে করা, জনস্বার্থ বিবেচনায় যানজট নিরাসনে জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কে ট্রাক ও লরী চলাচল বন্ধ রাখা হবে। (খাদ্য ও পচনশীল দ্রব্য, ঔষধ ও জ্বালানী বহনকারী যানবাহন, কাঁচা চামড়া এর আওতামুক্ত থাকবে) এ বিষয়ে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।  
সভায় আরো জানানো হয়, পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে যাত্রীদের নিকট থেকে সরকার কর্তৃক নির্ধারিত ভাড়া নেয়া. অতিরিক্ত যাত্রী ও মালামাল বহন না করা, মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা, ভিজিলেন্স টিম গঠন, কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা এবং সড়ক-মহাসড়কের ১৬টি পয়েন্টে পুলিশ প্রশাসনকে সহায়তা করার জন্য ১ হাজার রোভার স্কাউট নিয়োজিত করা হবে।  
মহাসড়কের পাশে পবিত্র ঈদ-উল- আযহা উপলক্ষ্যে কোনভাবেই যেন গরুর হাট বসতে না পারে সে বিষয়ে মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পরামর্শ দেয়া হয় ।
সভায় ঢাকা থেকে ময়মনসিংহ হয়ে গৌরিপুর পর্যন্ত বিআরটিসির বাস চলাচলের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সুপারিশ করা হয়।
সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব, বিআরটিসির চেয়ারম্যান, বিআরটিএর চেয়ারম্যানসহ মন্ত্রণালয় ও সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ সভায় উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য