kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


২৫ সেপ্টেম্বর থেকে কোচিং সেন্টার বন্ধের নির্দেশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:৩৮



২৫ সেপ্টেম্বর থেকে কোচিং সেন্টার বন্ধের নির্দেশ

এমবিবিএস ও বিডিএস ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে সকল ভর্তি কোচিং সেন্টার বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
আজ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

 
মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এমবিবিএস ও বিডিএস ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত এক মতবিনিময় সভায় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সর্বোচ্চ সতকর্তা ও স্বচ্ছতার সাথে আসন্ন এমবিবিএস ও বিডিএস ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন করার জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে নির্দেশ দিয়েছেন।  
পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ওভারসাইট কমিটিতে দৈনিক সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল, সাংবাদিক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, বিএফইউজে সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, দৈনিক আমাদের অর্থনীতির সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান, দৈনিক প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম মুকুলকে অন্তর্ভূক্ত করতে তিনি সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে গুজব ছড়িয়ে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করার সুযোগ যেন কোনো মহল না পায় সেদিকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকতে হবে। জনগণের জন্য মানসম্মত স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে মেডিকেল শিক্ষার মান উন্নয়নে সরকার বদ্ধপরিকর। এলক্ষ্যে এবারের ভর্তি পরীক্ষা নির্বিঘ্ন করতে ইতোমধ্যে এমবিবিএস ও বিডিএস ভর্তি পরীক্ষা পৃথক পৃথক দিনে গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।  
ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ পেতে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় সম্মিলিতভাবে ন্যূনতম প্রাপ্ত নম্বর জিপিএ-৯ নির্ধারণ করা হয়েছে।
সভায় অন্যান্যের মাঝে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বিমান কুমার সাহা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল আহসান খান, বিএমএ সভাপতি অধ্যাপক ডা. মাহমুদ হাসান, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, আমাদের অর্থনীতি সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, বিএমএ মহাসচিব অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান, বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনস এর সভাপতি অধ্যাপক ডা. সানোয়ার হোসেন, বিএমডিসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. শহীদুল্লাহ, ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের মেডিকেল শিক্ষা অনুষদের ডীন অধ্যাপক ডা. ইসমাইল খানসহ মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।  

 


মন্তব্য