kalerkantho

শনিবার । ২১ জানুয়ারি ২০১৭ । ৮ মাঘ ১৪২৩। ২২ রবিউস সানি ১৪৩৮।


'দুর্ঘটনা রোধে গাড়ি চালক ও মালিকদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩১ মার্চ, ২০১৬ ২১:১৬



'দুর্ঘটনা রোধে গাড়ি চালক ও মালিকদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে'

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, সড়ক দুর্ঘটনা রোধে অচিরেই গাড়ি চালক ও মালিকদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।
তিনি বলেন, আগামী সংসদ অধিবেশনে এ সংক্রান্ত একটি আইন করতে যাচ্ছে সরকার। সড়ক দুর্ঘটনা কমিয়ে আনার লক্ষ্যে আইনটি তৈরি করতে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে।
আজ দুপুরে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টার, বসুন্ধরা সিটিতে সেমস গ্লোবাল আয়োজিত ১১তম ঢাকা মোটর শো-২০১৬, দ্বিতীয় ঢাকা বাইক শো-২০১৬ এবং ঢাকা অটোপার্টস শো-২০১৬’র তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন এফবিসিসিআই’র প্রথম সহ-সভাপতি মো: সাইফুল ইসলাম মহিউদ্দীন। আরো বক্তৃতা করেন ঢাকা চেম্বার অব কমার্সের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হুমায়ুন রশিদ, মারকো শিপিং কোম্পানী (বাংলাদেশ) লিমিটেডের ডেপুটি ম্যানেজার ডিরেক্টর লেফটেন্যান্ট কর্ণেল (অব) রাজিবুল ইসলাম, র‌্যানকোন মোটর লিমিটেডের চীফ এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শাওন হাকিম প্রমুখ।
মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মোটরসাইকেল চালানোর সময় আরোহীদের মাথায় হেলমেট ব্যবহারের পরামর্শ দিয়ে বলেন, ঢাকা সিটিতে মোটরসাইকেল আরোহীদের কিছু সংখ্যক মাথায় হেলমেট ব্যবহার করেন, কিন্তু ঢাকার বাইরের আরোহী বা যাত্রীরা সেটিও করেন না।
তিনি বলেন, রাস্তায় অধিকাংশ মোটরসাইকেলে ২ থেকে ৩ জন করে আরোহী দেখা যায়। কিন্তু তাদের মধ্যে কারো মাথায়ই হেলমেট থাকে না। মন্ত্রী তাদের হেলমেট ব্যবহারের পরামর্শ দিয়ে বলেন, মোটরসাইকেলে ২ জনের বেশি যাত্রী উঠবেন না। এ বিষয়ে সকলকে সচেতন থাকতে হবে।
গাড়ি ব্যবসায়ীদের ভালমানের গাড়ি আনার আহবান জানিয়ে কাদের বলেন, আপনারা ভালমানের গাড়ি আনলে রাস্তা থেকে আনফিট গাড়িগুলো উঠিয়ে দেয়া হবে।
রাজধানীতে সিটিং সার্ভিস পরিবহনের নামে চিটিং সার্ভিস চলছে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, এবিষয়ে নজর দিতে হবে। এ ক্ষেত্রে সকলের সহযোগিতা দরকার। তিনি চিটিং সার্ভিসের দৌরাত্ম কমানোর জন্য দেশে বড় বড় গাড়ির ব্যবহার বাড়ানোর পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, তবে ছোট গাড়িগুলোও থাকবে।
মেট্রোরেল প্রসঙ্গে সেতু মন্ত্রী বলেন, আগামী এপ্রিল মাসের শেষ দিকে রাজধানীর উত্তরায় মেট্রোরেল ডিপোর শুভ উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মেট্রোরেল নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করবেন।
তিনি আরো বলেন, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে রাজধানীতে মেট্রোরেল চলাচল শুরু করবে। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
রাস্তায় যানজট ও ট্রাফিক ব্যবস্থা প্রসঙ্গে কাদের আরো বলেন, অচিরেই যানজট কমিয়ে আনতে ট্রাফিক আইন আরো কঠোরভাবে প্রয়োগ করার উদ্যোগ নেয়া হবে।
ঢাকা-চট্টগ্রাম রোডের উন্নয়ন কাজ প্রসঙ্গে সেতুমন্ত্রী বলেন, ঢাকা চট্টগ্রাম রোডে চারলেনের উন্নয়ন কাজ দ্রুতগতিতে চলছে। উন্নয়ন কাজ প্রায় শেষের পথে। আগামী মে ও জুন মাসের দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই লেনের শুভ উদ্বোধন করবেন।
সেমস গ্লোবাল মেলা আয়োজক কমিটি সূত্র জানায়, বাংলাদেশে অটোমোটিভ, কার, বাইক ও অটো যন্ত্রাংশ শিল্পের এ আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীতে বিশ্বের ১৫টি দেশ অংশ গ্রহণ করেছে। প্রদর্শনীতে ২০০টিরও বেশি স্টল রয়েছে। সেখানে দেশী বিদেশী নির্মাতা, প্রস্তুতকারক ও সরবরাহকারীগণ অত্যাধুনিক গাড়ি, মোটরসাইকেল, লুব্রিকেন্ট, সিএনজি রূপান্তরসহ বিভিন্ন প্রযুক্তি ও অটো যন্ত্রাংশ প্রদর্শন করছে। প্রদর্শনী ২ মার্চ পর্যন্ত চলবে।
মেলা আয়োজক কমিটির কর্মকর্তারা জানান, প্রদর্শনীতে ক্রেতা, দর্শক ও উদ্যোক্তাগণ ব্র্যান্ডনিউ গাড়ি, যন্ত্রাংশ, আনুষঙ্গিক উপকরণ ও নতুন প্রযুক্তির সাথে পরিচিত হওয়ার সুযোগ লাভ করবে। এখানে গাড়ির চেচিস, অটো গিয়ার, মেন্যুয়াল গিয়ার, ড্রাইভ লাইন, ব্রেক, স্টিয়ারিং হুইল, ইঞ্জিন, রোড সেফটি এবং ট্রাফিক রুলস নিয়ে আলোচনার আয়োজন রাখা হয়েছে।


মন্তব্য