kalerkantho

শুক্রবার । ২০ জানুয়ারি ২০১৭ । ৭ মাঘ ১৪২৩। ২১ রবিউস সানি ১৪৩৮।


খালেদা জিয়া পাকিস্তানিদের সঙ্গে কণ্ঠ মিলিয়েছেন : বাণিজ্যমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩০ মার্চ, ২০১৬ ২১:৫২



খালেদা জিয়া পাকিস্তানিদের সঙ্গে কণ্ঠ মিলিয়েছেন : বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া পাকিস্তানের পথ অনুসরণ করে বাংলাদেশকে ধ্বংসের ষড়যন্ত্র করছে।
তিনি বলেন, পাকিস্তানিরা বাংলাদেশের ইতিহাসকে কলুষিত করতে চেয়েছিল, বেগম খালেদা জিয়া তাদের সঙ্গে কণ্ঠ মিলিয়েছে।
আজ বিকেলে ’৭১ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শিশু একাডেমি মিলনায়তনে স্বাধীনতা দিবসের ৪৫ তম বার্ষিকী উপলক্ষে ১১ জন বীর নারীকে সম্মাননা প্রদান ও আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার চেতনা ও মূল্যবোধকে নির্মূল করতে ষড়যন্ত্রকারীরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করেছে।
৫ জানুয়ারির নির্বাচন বানচাল করতে নির্বাচনের আগে খালেদা জিয়া গণহত্যার চেষ্টা, ২০১৫ তে নারী ও শিশু হত্যাসহ দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করে বিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার পাঁয়তারা করছিল।
‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৬ দফা আন্দোলন নিয়ে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে মন্ত্রী বলেন, তিনি বলেছিলেন, ক্ষমতার জন্য ছয়দফার আন্দোলনে যাইনি,আওয়ামী লীগের জন্য যাইনি, গিয়েছি দেশের সাধারণ মানুষের জন্য’।
মন্ত্রী এসময় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলের সমন্বিত উদ্যোগে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে যাওয়ার আহবান জানান।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশে নারীর অগ্রগতি সীমাহীন। মুক্তিযুদ্ধে নারীর অংশগ্রহণের ধারাবাহিকতায় দেশে নারী নেতৃত্বের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। নারী উন্নয়নের সকল ক্ষেত্রে এগিয়েছে।
বেসরকারী সংগঠন ’৭১ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ডা: খালেদ শওকত আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন বীর কর্ণেল শওকত আলী এম পি ও সাংবাদিক এবং কলামিস্ট আবেদ খান।
অনুষ্ঠানে যাদের সম্মাননা দেয়া হয় সেসব মুক্তিযোদ্ধারা হলেন, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুনন্নেছা মুজিব (মরণোত্তর), মুক্তিযোদ্ধা আয়েশা বেগম,অধ্যাপিকা পান্না কায়সার,মুক্তিযোদ্ধা ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী, ড. ভ্যালরি এ টেইলর, মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ বেগম, মুক্তিযোদ্ধা রোকেয়া কবির, মুক্তিযোদ্ধা লুবনা মরিয়ম, মুক্তিযোদ্ধা শীলা মোমেন,মুক্তিযোদ্ধা সুলতানা কামাল এবং মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপিকা হান্নানা বেগম।
জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুরুতে বীর নারীদের উত্তোরীয় পরিয়ে দেয়া হয়।
অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধারা ১৯৭১ সালের রনাঙ্গনের গল্প শোনান উপস্থিত অতিথিদের। এসময় তারা নতুন প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধেও সঠিক ইতিহাস জানাতে সকলের প্রতি আহবান জানান।


মন্তব্য