kalerkantho


হাত পেতে নয়, নিজেরা করবো : প্রধানমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩০ মার্চ, ২০১৬ ১৫:০৪



হাত পেতে নয়, নিজেরা করবো : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কারও কাছে হাত পেতে নয়, আমরা নিজেরা করবো। আমরাও পারি, আমাদেরও সক্ষমতা রয়েছে। এ চিন্তাধারা নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলা হবে বলেও জানিয়েছেন শেখ হাসিনা। মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারের একাংশের উদ্বোধন শেষে আজ বুধবার সকালে রাজধানীর অফিসার্স ক্লাব মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি বলেন, সাধারণ মানুষ যাতে কম খরচে সারাদেশে চলাচল করতে পারেন সে জন্য রেলকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সারাদেশে রেল যাতায়াতের সুবিধা ছড়িয়ে দেওয়া হবে। ই-টিকিটিং কার্যক্রম বাস্তবায়নের চেষ্টা চলছে। বার বার টিকিট কিনতে হবে না। ভবিষ্যতে ঘরে বসেই একটি টিকিট কিনে যে কোনো স্থানে যাওয়া যাবে।

শেখ হাসিনা বলেন, রাজধানীর মানুষের জীবনযাত্রা সহজ করতে কাজ করছে সরকার। এরই অংশ হিসেবে ফ্লাইওভার তৈরিসহ নেওয়া হচ্ছে নানা ধরনের উদ্যোগ। যাতায়াতে রাজধানীর মানুষকে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা পোহাতে হয়। এ সব সমস্যা দূর করে যানজটমুক্ত রাজধানী গড়ে তোলা হবে। দুর্ঘটনা রোধ ও সড়ক ব্যবহারের বিষয়ে জনগণকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নাগরিকদের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তোলা সবচেয়ে জরুরি। সড়ক দুর্ঘটনার পর নাগরিকরা কারণ না জেনেই রাস্তা অবরোধ, গাড়ি ভাংচুর করেন। সে দিকে সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের নজর দেওয়া উচিৎ। সকলকে ট্রাফিক আইন মেনে চলা উচিৎ। দুর্ঘটনায় পথচারীর দোষ কতটুকু তাও দেখতে হবে। কারণ অনেকে না বুঝে দৌড়ে সড়ক পাড়াপার হন। এক্ষেত্রে ট্রাফিক পুলিশকেও সচেতন হতে হবে।

দুর্ঘটনার পর চালককে মারার ক্ষেত্রে যে পরিমাণ উৎসাহ লক্ষ্য করা যায়, দুর্ঘটনা কবলিত আহতকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে ততটা উৎসাহ দেখা যায় না। তাই এ সকল মারামারি-ভাংচুরের পথ পরিহারের জন্য সকলকে আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, ইতোমধ্যেই আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ করে দিয়েছি। প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের মানুষ পর্যন্ত এর সুবিধা পাচ্ছে। সমস্ত টেন্ডার কার্যক্রম অনলাইনের মাধ্যমে হচ্ছে। ইউনিয়ন পর্যায়ে পর্যন্ত একটি মোটরসাইকেল কিনতে হলে তাকে ঢাকায় আসতে হচ্ছে না। সেখানে বসেই অনলাইনে অর্ডার দিয়ে কিনতে পারছেন এবং রেজিস্ট্রেশন পর্যন্ত করা সম্ভব হচ্ছে।

 


মন্তব্য