kalerkantho


মুন্সীগঞ্জে মুদ্রণশিল্প নগরী স্থাপনসহ ৮ প্রকল্প অনুমোদন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ মার্চ, ২০১৬ ১৪:৩৪



মুন্সীগঞ্জে মুদ্রণশিল্প নগরী স্থাপনসহ ৮ প্রকল্প অনুমোদন

মুন্সীগঞ্জে মুদ্রণশিল্প নগরী স্থাপনসহ ৮টি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। এগুলো বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১ হাজার ৪৪২ কোটি ৪১ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ৯৫৩ কোটি ৫২ লাখ টাকা, সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে ২৫ কোটি ৪ লাখ টাকা এবং বৈদেশিক সহায়তা থেকে ৪৬৩ কোটি ৮৫ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলনকক্ষে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এ সময় পরিকল্পনাসচিব তারিকুল-উল ইসলাম, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব কানিজ ফাতেমা, আইএমইডির সচিব ফরিদ উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী এবং সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. শামসুল আলম উপস্থিত ছিলেন। পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, স্ক্যাডা একটি অত্যাধুনিক সিস্টেম যার মাধ্যমে দূর নিয়ন্ত্রণকক্ষ হতে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিয়ন্ত্রণ করাসহ দ্রুততম সময়ের মধ্যে বিদ্যুতের সকল প্যারামিটার পর্যবেক্ষণ করা যায়।

উপকেন্দ্র হতে রিপোর্ট টার্মিনাল ইউনিট বা গেটওয়ে এর মাধ্যমে তথ্যাদি সংগ্রহপূর্বক স্ক্যাডা নিয়ন্ত্রণকক্ষের সার্ভারে সংরক্ষিত হয়। এ সকল তথ্যাদির পর্যবেক্ষণ, পর্যালোচনা ও বিশ্লেষণের মাধ্যমে নিরাপদ, নির্ভরযোগ্য ও মানসম্মত বিদ্যুৎ গ্রাহক আঙিনায় পৌঁছানো যায়। পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভৌত ও একাডেমিক সুবিধা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্প অনুমোদন দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুশাসন দিয়েছেন যে, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও জলাশয়ের ব্যবস্থা অবশ্যই থাকতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, আমরা ২০২১ সালের মধ্যে আউটসোর্সিং-এর মাধ্যমে অন্তত ২ হাজার মিলিয়ন ডলার আয় করতে চাই। অনুমোদিত প্রকল্পগুলো হচ্ছে : চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের ২য় ক্যাম্পাস স্থাপন প্রকল্প, এটি বাস্তবায়নে ব্যয় ধরা হয়েছে ২৩৮ কোটি ৮৭ লাখ টাকা। নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভৌত ও একাডেমিক সুবিধা বৃদ্ধি করণ প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ২৩৮ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের খাদ্য ও বিকিরণ জীববিজ্ঞান সুবিধাদিও আধুনিকীকরণ প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৭ কোটি ৬৭ লাখ টাকা।

ডেসকো এলাকায় সুপারভাইজরি কন্ট্রোল ও ডাটা অ্যাকুইজিশন (স্ক্যাডা) সিস্টেম স্থাপন প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ১৫২ কোটি ২০ লাখ টাকা। বিসিক মুদ্রণশিল্প নগরী প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ১৪০ কোটি ৪১ লাখ টাকা। কালিয়াকৈর হাইটেক পার্ক এর উন্নয়ন প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৯৪ কোটি ১৫ লাখ টাকা। সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প, এর ব্যয় ধরা হয়েছে ১৪০ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। রুমা-বগালেক-কেওক্রাডং সড়ক উন্নয়ন প্রথম পর্যায় নির্মাণ প্রকল্প, এর ব্যয় ৮৯ কোটি ৯৮ লাখ টাকা।

 


মন্তব্য