kalerkantho


বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে মুনাফামুখী না হওয়ার আহবান শিক্ষামন্ত্রীর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ মার্চ, ২০১৬ ১৯:৪১



বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে মুনাফামুখী না হওয়ার আহবান শিক্ষামন্ত্রীর

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় উদ্যোক্তাদের মুনাফামুখী না হয়ে উচ্চশিক্ষা প্রসারের মহান দায়িত্বকে সেবামূলক কার্যক্রম হিসেবে গ্রহণ করার আহবান জানিয়েছেন।
মন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার ঢাকায় ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশের (আইইউবি) ১৭তম সমাবর্তনে বক্তৃতাকালে এ আহবান জানান।
বিশ্ববিদ্যালয়টির চ্যান্সেলর রাষ্ট্রপতি মোঃ আব্দুল হামিদের প্রতিনিধি হিসেবে সমাবর্তনে সভাপতিত্বকালে শিক্ষামন্ত্রী দেশের জনগণের আর্থ-সামাজিক অবস্থা বিবেচনা করে উদার দৃষ্টিভঙ্গিতে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রকার ফি নির্ধারণের জন্য বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের প্রতি অনুরোধ জানান।
বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে দেশের জন্য অতি প্রয়োজনীয় দক্ষ জনসম্পদ গড়ে তুলতে বিরাট সম্ভাবনার খাত হিসেবে উল্লেখ করে এ সম্ভাবনা পুরোপুরি কাজে লাগাতে শিক্ষামন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয় উদ্যোক্তাদের সংশ্লিষ্ট বিধিবিধান মেনে চলার পরামর্শ দেন।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, যেসব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নিজস্ব ক্যাম্পাসে এখনো যায়নি, একাধিক ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করছে, বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে নিজস্ব ক্যাম্পাসে স্থানান্তরিত হতে ব্যর্থ হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।
অনুষ্ঠানে সমাবর্তন বক্তা ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বীর বিক্রম।
এতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান, আইইউবি উপাচার্য অধ্যাপক এম, ওমর রহমান প্রমুখ বক্তব্য দেন।
প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় আসার পর দেশের শিক্ষাখাতকে সর্বোচচ গুরুত্ব দিয়েছেন। শিক্ষাখাতে সরকার বিপুল পরিমান অর্থ বরাদ্দ দিয়েছে।
ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষাখাতে বিপুল পরিমান অর্থ বিনিয়োগ করেছে। একারণে দেশ এখাতে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করেছে।
আইইউবি সমাবর্তন অনুষ্টানে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে ১ হাজার ৩৮৮জন ছাত্র-ছাত্রীকে ডিগ্রী প্রদানসহ শিক্ষা সনদ প্রদান করা হয়। তার মধ্যে ৪ শ’৩৪ জন স্নাতকোত্তর ও ৯ শ’ ৫৪জন স্নাতক শিক্ষার্থী রয়েছে। ১০৫জন শিক্ষার্থীকে শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য বিশেষ স্বীকৃতি প্রদান করা হয়। তার মধ্যে সেরা অলরাউন্ডার হিসেবে শিক্ষার্থী মাহতাব ফাহিমকে সেরা পুরস্কার হিসেবে সোনার পদক প্রদান করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।
আইইউবি সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট সদস্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের ডীন, রেজিষ্টার, জনপ্রতিনিধি, দেশী বিদেশী অতিথিবর্গ, বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষকসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।
পরে অনুষ্টানের দ্বিতীয় অধিবেশনে এক মনোঞ্জ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


মন্তব্য