kalerkantho

শুক্রবার । ২০ জানুয়ারি ২০১৭ । ৭ মাঘ ১৪২৩। ২১ রবিউস সানি ১৪৩৮।


অনুমোদনহীন ওষুধ বিক্রি : ৪ প্রতিষ্ঠানের ১৪ জনের জরিমানা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ মার্চ, ২০১৬ ২২:৪১



অনুমোদনহীন ওষুধ বিক্রি : ৪ প্রতিষ্ঠানের ১৪ জনের জরিমানা

অনুমোদনহীন ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রির অপরাধে রাজধানীতে চারটি প্রতিষ্ঠানের ১৪ জনকে ১৪ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে ১৭ লাখ টাকার অবৈধ ওষুধ জব্দ করা হয়েছে। আজ সোমবার রাজধানীর হাতিরপুল ও পল্টন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করা হয়।

এ ব্যাপারে র‍্যাব-২-এর সহকারী পুলিশ সুপার ইয়াসির আরাফাত বলেন, রাজধানীর হাতিরপুল ও পল্টন এলাকায় অভিযানে প্রতিষ্ঠানগুলোতে ভারত ও চীন থেকে আনা অবৈধ ওষুধ সারা দেশে বিক্রির প্রমাণ পাওয়া গেছে। পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানগুলোতে মেয়াদোত্তীর্ণ সার্জিক্যাল সামগ্রী ও ওষুধের লেবেল পরিবর্তন করে প্রতিষ্ঠিত নামী-দামি কম্পানির লেবেল অবৈধভাবে ব্যবহার করা হয়েছে। এসব অপরাধে হাতিরপুলের মিক্স মেডিকেলের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট চারজনকে চার লাখ টাকা, ডক্টরস ফার্মার তিনজনকে দুই লাখ টাকা, হেল অ্যান্ড হার্টি মেডিসিন লিমিটেলের চারজনকে পাঁচ লাখ ও পল্টন এলাকার মেসার্স পাইওনিয়ার হেলথ কেয়ার লিমিটেডের তিনজনকে তিন লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া অনাদায়ে প্রত্যেককে ১৫ দিন থেকে দুই মাস পর্যন্ত কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, দণ্ড পাওয়া ব্যক্তিরা হলেন মিক্স মেডিকেলের সুশান্ত কুমার চৌধুরী (৪০), কামরুল ইসলাম (৪০), মো. বাবুল (৩৩) ও কায়সার আলম (৩২); ডক্টরস ফার্মার আবদুল মান্নান (৪৩), আরাফাত হোসেন ও মতিন রহমান (২৭); হেল অ্যান্ড হার্টির গৌতম কৃষ্ণ ঘোষ (৪৯), আতিকুর রহমান (৪৯), মিতু বসাক (৩২) ও বিকাশ কান্তি বান্দা (৪০) এবং মেসার্স পাইওনিয়ার হেলথ কেয়ার লিমিটেডের আবদুল জলিল (৫৫), আবদুল হান্নান (৫৮) ও সাদ্দাম হোসেন (৩০)।

সহকারী পুলিশ সুপার আরো বলেন, প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে সারা দেশে পাইকারি দরে ওষুধ বিক্রি করা হতো। প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে ১৭ লাখ টাকার ওষুধ জব্দ করা হয়েছে। জব্দ করা ওষুধের অধিকাংশই ডায়াবেটিক, বন্ধ্যত্ব ও ব্যথা নাশকের।


মন্তব্য