kalerkantho

বুধবার । ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ । ৫ মাঘ ১৪২৩। ১৯ রবিউস সানি ১৪৩৮।


বঙ্গবন্ধু সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ১৯:৫১



বঙ্গবন্ধু সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম বলেছেন, বঙ্গবন্ধু হাজার বছরের সর্বকালের সর্ব শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী। তিনি অন্তরে যা বিশ্বাস করতেন, দেশের মানুষকে তাই বলতেন এবং জীবন দিয়ে হলেও তা বাস্তবায়ন করতেন। তিনি বলেন, শুধু দেশের মানুষ নয় বিশে^র রাষ্ট্রনায়কগণও বঙ্গবন্ধুকে গভীর শ্রদ্ধার চোখে দেখতেন।
পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আজ রাজশাহী জেলার চারঘাট উপজেলার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৭তম জন্ম দিবস ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপনের লক্ষ্যে কেক কেটে অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করেন। তিনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন।
বঙ্গবন্ধুর জন্মদিবস উপলক্ষে চারঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নেতৃত্বে একটি বিশাল আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি চারঘাট উপজেলা কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ শেষে পাইলট স্কুলে এসে শেষ হয়। ‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায়, থাকবে শিশু সুরক্ষায়’ শ্লোগানে মুখরিত ছিল চারঘাট উপজেলা প্রাঙ্গন। এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘শিশু গড়বে নতুন দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ’।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিশুদের প্রতি বঙ্গবন্ধুর ভালোবাসা ছিল গভীর। একজন রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে শিশুদের প্রতি তাঁর অপার ভালোবাসা ও মমত্ববোধ ছিল চোখে পড়ার মত। শিশুদের প্রতি কোন অত্যাচার-নির্যাতন তিনি সহ্য করতেন না। এদেশের জনগণের কথা চিন্তা করেই তিনি সোনার বাংলাদেশ গড়তে চেয়েছিলেন। কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনককে স্বাধীনতা বিরোধী ঘাতকদের হাতে সপরিবারে প্রাণ দিতে হয়েছিল। অল্প সময়ের মধ্যে মানুষকে আপন করে নেয়ার অফুরন্ত ক্ষমতা ছিল তাঁর। তিনি সবসময় নীতিতে ছিলেন অটল। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর গুণের কথা বলে শেষ করা যাবে না। ফাঁসির মঞ্চ থেকে বলেছিলেন এদেশের জনগণের জন্য আমি প্রাণ দিতে প্রস্তুত।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে যা করা দরকার তা তিনি করবেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাঘা চারঘাটে একটি শিশুকেও যেন পরিবারের রোজগারের জন্য শ্রম দিতে না হয়, সে লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। এ ধরণের শিশুদের খুঁজে বের করে তাদের বিদ্যালয়মুখী করতে হবে। একটি শিশুও যেন অত্যাচারের শিকার না হয় এবং অনাহারে না থাকে। প্রমাণিত হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনকে নির্দেশ দেয় হয়।
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় প্রতিমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনীর গ্রাফিক্স নোবেলের দুইশতটি বই চারঘাট ও বাঘা উপজেলার শিশুদের মাঝে বিতরণের জন্য প্রশাসনের হাতে তুলে দেন। অনুষ্ঠানে প্রতিযোগীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
চারঘাট উপজেলার নির্বাহি অফিসার আব্দুস সামাদ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। অন্যান্যের মধ্যে বিশেষ অতিথি চারঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো: আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মো: ফখরুল ইসলাম, সরদহ ইউপি চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান মধু, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল হক, সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন এবং বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষকমন্ডলী ও নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে বাঘা উপজেলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৭তম জন্ম দিবস ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপনের লক্ষ্যে কেক কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন উদ্বোধন করা হয়।
একই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের যৌথ অর্থায়নে সার্টিফিকেট বিতরণ ও অর্থ ফেরৎ প্রদান করা হয়।


মন্তব্য