kalerkantho


রফিক আজাদের মরদেহ শহীদ মিনারে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ মার্চ, ২০১৬ ১১:০৩



রফিক আজাদের মরদেহ শহীদ মিনারে

বাংলা সাহিত্যের বিশিষ্ট কবি ও মুক্তিযোদ্ধা রফিক আজাদের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেওয়া হয়েছে। সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য সোমবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সেখানে রাখা হবে। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠানে উপস্থিত রয়েছেন কবি পরিবারের সদস্যরা, সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দিন ইউসুফ, কবিতা পরিষদের সভাপতি মুহাম্মদ সামাদ প্রমুখ।
 
শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে রফিক আজাদের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে তাঁর একসময়ের কর্মস্থল বাংলা একাডেমিতে। শ্রদ্ধা জানানোর জন্য দুপুর ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত সেখানে রাখা হবে। বাদ জোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। জানাজার পর তাঁকে মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হবে। কবি রফিক আজাদ গত শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ইন্তেকাল করেন। তার মরদেহ বারডেমের হিমঘরে রাখা ছিল।

১৯৪১ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল থানার এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন কবি রফিক আজাদ। তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ার সময়ই ১৯৫২ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি বাবা-মার কঠিন শাসন উপেক্ষা করে ভাষা শহীদদের স্মরণে খালি পায়ে মিছিল করেন তিনি। চিরদিনই প্রতিবাদী এই কবি তাঁর দ্রোহকে শুধু কবিতার লেখনীতে আবদ্ধ না রেখে লড়াইয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন জাতির চরম ক্রান্তিকালে, ১৯৭১ এ হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে।
 
অসামান্য এই কবি অসংখ্য পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। আধুনিক বাংলা সাহিত্যের অন্যতম জনপ্রিয় কবি রফিক আজাদ ২০১৩ সালে একুশে পদক এবং ১৯৮৪ সালে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার অর্জন করেন। এ ছাড়াও রয়েছে হুমায়ুন কবির পুরস্কার, বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা, কবি হাসান হাফিজুর রহমান পুরস্কার, কবি আহসান হাবীব পুরস্কার অন্যতম।

 


মন্তব্য