kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'সাত কোটি ১০ লাখ ৩২ হাজার ডলারের হদিস মিলছে না'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ মার্চ, ২০১৬ ১৬:৩৭



'সাত কোটি ১০ লাখ ৩২ হাজার ডলারের হদিস মিলছে না'

রিজার্ভের চুরি হওয়া অর্থের সাত কোটি ১০ লাখ ৩২ হাজার ডলারের হদিস মিলছে না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু হেনা মোহাম্মদ রাজি হাসান।

অর্থ চুরির বিষয়টি সম্পর্কে জানতে আজ রবিবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে বাংলাদেশ ব্যাংকে যান অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংকিং ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য এম আসলাম আলম।

পরে তিনি ও ডেপুটি গভর্নর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

ডেপুটি গভর্নর বলেছেন, রিজার্ভের চুরি হওয়া অর্থের আট কোটি ১০ লাখ ডলার ফিলিপাইনে গেছে। এর মধ্যে ফিলিপাইনের অ্যান্টি মানি লন্ডারিং কর্তৃপক্ষ সে দেশের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং করপোরেশনের ছয়টি হিসা​ব জব্দ করেছে। ৬৮ হাজার ডলার এসব হিসাবে রয়ে গেছে। আর সাত কোটি ১০ লাখ ৩২ হাজার ডলারের হদিস মিলছে না।

বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থ চুরির বিষয়টি প্রায় মাসখানেক অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংকিং ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য এম আসলাম আলমকে জানানো হয়নি বলে তিনি জানিয়েছেন।

এম আসলাম আলম বলেন, অর্থ চুরির ঘটনাটি ঘটেছে ৫ ফেব্রুয়ারি। এরপর ২৩ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংকের বোর্ড সভা হয়েছে। ২৯ ফেব্রুয়ারি ও ১ মার্চ বাংলাদেশ ব্যাংকের অডিট কমিটির সভা হয়েছে। কোনো সভাতেই বিষয়টি তাঁকে জানানো হয়নি। এই তিন বৈঠকের কোনোটিতেই বিষয়টি নিয়ে আনুষ্ঠানিক বা অনানুষ্ঠানিক কোনো আলোচনা হয়নি। বিষয়টি প্রায় মাসখানেক তাঁর কাছে অজানা ছিল। এক প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, আমি মনে করি, এটা অবশ্যই বাংলাদেশ ব্যাংকের আমাদের ও সরকারকে জানানো উচিত ছিল। কেন জানায়নি, আমি জানি না।


মন্তব্য