kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ষোড়শ সংশোধনীর বৈধতা বিষয়ে রায় ৫ মে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ মার্চ, ২০১৬ ১৭:৩০



ষোড়শ সংশোধনীর বৈধতা বিষয়ে রায় ৫ মে

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল চেয়ে করা রিট আবেদনের শুনানি শেষ হয়েছে। পরে মামলার রায়ের জন্য ৫ মে তারিখ নির্ধারণ করেছেন আদালত।

বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী, বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও বিচারপতি আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের বিশেষ বেঞ্চ বৃহস্পতিবার বিকেলে রায়ের এই তারিখ দেন। এর আগে একই দিনে রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি শেষ করেন।

শুনানিতে তিনি বলেন, সামরিক ফরমানের মাধ্যমে সংবিধানে যেসব পরিবর্তন আনা হয়েছিল সেগুলো রহিত করে বাহাত্তরের সংবিধানে ফিরে যাওয়াই ছিল পঞ্চদশ ও ষোড়শ সংশোধনীর মূল উদ্দেশ্য। তা ছাড়া এই সংশোধনী কার্যকর করতে যে আইন প্রণয়ন করা প্রয়োজন তা এখনো হয়নি। তাই সেই আইন হওয়ার আগেই এ রিট করাটা সময়োপযোগী হয়নি। অপরদিকে রিট আবেদনের পক্ষে আইনজীবী মনজিল মোরসেদ শুনানি করেন।

শুনানিতে যুক্তি উপস্থাপনকালে তিনি উল্লেখ করেন, ষোড়শ সংশোধনীর মাধ্যমে সংবিধানের মৌলিক কাঠামোতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এই সংশোধনীর মাধ্যমে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ক্ষুণ্ন হয়েছে।
তাই এই সংশোধনী বাতিল চেয়েছেন মনজিল মোরসেদ।

সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারপতিদের অপসারণের ক্ষমতা জাতীয় সংসদের হাতে ফিরিয়ে দিয়ে করা সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী কেন বেআইনি ও বাতিল ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট। রিটে মন্ত্রিপরিষদসচিব, রাষ্ট্রপতি কার্যালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব, আইনসচিব ও সংসদ কার্যালয়ের সচিবকে মামলায় বিবাদী করা হয়েছিল।


মন্তব্য