'কলকারখানার উৎপাদন বৃদ্ধিতে-334062 | জাতীয় | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

রবিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১০ আশ্বিন ১৪২৩ । ২২ জিলহজ ১৪৩৭


'কলকারখানার উৎপাদন বৃদ্ধিতে পরিদর্শকগণকে কাজ করতে হবে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ মার্চ, ২০১৬ ১৯:৫৮



'কলকারখানার উৎপাদন বৃদ্ধিতে পরিদর্শকগণকে কাজ করতে হবে'

শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু বলেছেন, কলকারখানার কর্মপরিবেশ, নিরাপত্তা ব্যবস্থা এবং উৎপাদন বৃদ্ধিতে পরিদর্শকগণকে মালিক ও শ্রমিকদের মধ্যে সেতু বন্ধন হিসেবে কাজ করতে হবে।
তিনি আজ রাজধানীর বিয়াম মিলনায়তনে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শণ অধিদপ্তর কর্তৃক আয়োজিত পরিদর্শকগনের বুনিয়াদী প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।
মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, কলকারখানার কর্মপরিবেশের উন্নতি হয়েছে, উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। স্বাধীনতার ৪৫ বছর পর দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্নতা অর্জন করেছে। কলকারখানা পরিদর্শকগণ মালিক-শ্রমিকদের মাঝে সেতু বন্ধন হিসেবে কাজ করলে উৎপাদন আরো বৃদ্ধি পাবে। এ জন্য পরিদর্শকগণকে নিরলস কাজ করতে হবে।
তিনি বলেন, পরিদর্শকগণকে শ্রম আইন ও বিধিমালা ভালভাবে জানতে হবে। বিধিমালা অনুযায়ী মালিকদের স্বার্থ ও শ্রমিকদের অধিকার সম্পর্কে সজাগ থাকতে হবে।
কলকারখানা পরিদর্শন কাজের পরিধি ও গুরুত্ব বৃদ্ধি পাওয়ায় বর্তমান সরকার কলকারখানা পরিদপ্তরকে অধিদপ্তরে উন্নিত করেছে। বিশ্বায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় পরিদর্শন সংশ্লিষ্ট সকলকে যুগোপযোগী করার লক্ষে প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদী সরবরাহ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে তৈরী পোশাক শিল্প সহ অন্যান্য সকল প্রতিষ্ঠান এ অধিদপ্তরের কার্যক্রমের সুফল পেতে শুরু করেছে।
বিয়াম ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক মোঃ নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে কলকারখানা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের মহা-পরিদর্শক সৈয়দ আহম্মদ, কানাডিয়ান হাইকমিশনের পরিকল্পনা বিভাগের উপপরিচালক মিজ হিদার ম্যাক ব্রিড এবং আইএলও-’র আরএমজি প্রোগ্রামের প্রশিক্ষন শাখার প্রধান তোমো পচিয়েনেন বক্তৃতা করেন।

মন্তব্য