kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বাংলাদেশে দেখা গেল আংশিক সূর্যগ্রহণ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ মার্চ, ২০১৬ ০৯:৩৫



বাংলাদেশে দেখা গেল আংশিক সূর্যগ্রহণ

বাংলাদেশে দেখা গেল আংশিক সূর্যগ্রহণ। আজ বুধবার সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গেই সারা দেশ থেকে এ গ্রহণ দেখা যায়।

অনুসন্ধিৎসু চক্রের জ্যোতির্বিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি মো. শাহজাহান মৃধা জানান, ঢাকার সময় ভোর ৬টা ১২ মিনিটে সূর্যগ্রহণ শুরু হয়েছে। সূর্যগ্রহণ সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছায় সকাল ৬টা ৩৮ মিনিট ৪৯ সেকেন্ডে। শেষ হয় ৭টা ২১ মিনিট ৭ সেকেন্ডে। শাহজাহান মৃধা জানান, সূর্যগ্রহণ খালি চোখে দেখা অত্যন্ত ক্ষতিকর। এক্সরে ফিল্ম, নেগেটিভ, ভিডিও বা অডিও ক্যাসেটের ফিতা, সানগ্লাস, ঘোলা বা রঙিন কাচে এসব ক্ষতিকর অতিবেগুনি ও অবলোহিত রশ্মি আটকায় না। তাই কোনোক্রমেই এগুলো দিয়ে সূর্যগ্রহণ পর্যবেক্ষণ করা যাবে না।

সূর্যগ্রহণ পর্যবেক্ষণের জন্য বিজ্ঞান সংগঠন অনুসন্ধিৎসু চক্র নানা প্রস্তুতি নিয়েছে। এ পর্যবেক্ষণে আধুনিক যন্ত্রপাতিসহ থাকছে সব ব্যবস্থা। রাজধানীর সূর্যগ্রহণ পর্যবেক্ষণ ক্যাম্পটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঢাকার গ্রিন মডেল টাউন মাণ্ডায়। মেঘমুক্ত আকাশ থাকা সাপেক্ষে ক্যাম্প শুরু হয়েছে সকাল ৬টা ১০ মিনিট থেকে। গ্রহণ শেষ হওয়া পর্যন্ত পর্যবেক্ষণ ক্যাম্প সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। এই ক্যাম্প থেকে ছবি ও বৈজ্ঞানিক তথ্য সংগ্রহ করা হবে। জ্যোতির্বৈজ্ঞানিক ঘটনা যথাযথভাবে পর্যবেক্ষণের জন্য ক্যাম্পে ৮ ইঞ্চি স্মিড ক্যাসিগ্রেইন টেলিস্কোপ রয়েছে।
 
বাংলাদেশ ছাড়াও আংশিক সূর্যগ্রহণ দেখা গেছে চীন, জাপান, কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়ার কিছু অংশে। দেখা গেছে যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই ও আলাস্কা অঙ্গরাজ্যেও। পূর্ণ সূর্যগ্রহণ দেখার সুযোগ হয়েছে ইন্দোনেশিয়ার কিছু দ্বীপ থেকে। বাংলাদেশ থেকে পরবর্তী আংশিক সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে তিন বছর পর ২০১৯ সালের ২৬ ডিসেম্বর। আর ২১১৪ সালের ৩ জুনের আগে বাংলাদেশ থেকে কোনো পূর্ণ সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে না।

 


মন্তব্য