kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'বীরাঙ্গনা সকল নারী মুক্তিযোদ্ধাদের বকেয়াসহ ভাতা প্রদান করা হবে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ মার্চ, ২০১৬ ২০:২৮



'বীরাঙ্গনা সকল নারী মুক্তিযোদ্ধাদের বকেয়াসহ ভাতা প্রদান করা হবে'

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আকম মোজাম্মেল হক বলেছেন, বীরাঙ্গনা সকল নারী মুক্তিযোদ্ধাদের বকেয়াসহ ভাতা প্রদান করা হবে। ইতোমধ্যে ৪১ জনের গেজেট হয়েছে।

আরো ৪৪ জনের নাম গেজেট তালিকার প্রক্রিয়াধীন রয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, প্রায় ২ হাজার মুক্তিযোদ্ধার জন্য বকেয়া ভাতা প্রদান করার জন্য চলতি বছর থোক বরাদ্দ রাখা হয়েছে।
মন্ত্রী আজ ১৯ জন বীর নারী মুক্তিযোদ্ধাকে (বীরাঙ্গনা)কে আর্থিক সহায়তাসহ সম্মানা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনের অ্যালামনাই ফ্লোরে এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক ।
অনুষ্ঠানে ১৯ জন বীর নারী মুক্তিযোদ্ধাদের প্রত্যেককে নগদ ৫০ হাজার টাকা ও মূল্যবান বস্ত্র সামগ্রী প্রদান করা হয়।
অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রকীবউদ্দীন আহমেদ-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমাদ। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম, অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব দেওয়ান রাশিদুল হাসান, এডভোকেট মোল্লা মো: আবু কায়সার, মুক্তিযোদ্ধা শেখ ফাতেমা আলী (বীরাঙ্গনা) এবং মুক্তিযোদ্ধা লাইলী বেগম (বীরাঙ্গনা)।
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতা এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মত্যাগকারী ৩০ লাখ শহীদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, মুক্তিযুদ্ধে আমাদের ২ লক্ষাধিক মা-বোন সর্বোচ্চ আত্মত্যাগ করেছেন। তাঁদের জন্য আমরা সকলেই গর্বিত। তাঁদের সম্মান, মর্যাদা ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন এবং অসাধারণ অবদান রেখে চলছেন।
তিনি বলেন, প্রত্যেক বীরাঙ্গণাকে ৮ লাখ টাকা প্রদান করে বাড়ি তেরি করে দেয়া হবে। ২৬ মার্চের আগেই বীরাঙ্গণা সকল নারী মুক্তিযোদ্ধাদের বকেয়া ৭০ হাজার টাকা করে প্রধান করা হবে।
আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল জানিয়ে তিনি বলেন, দেশে আজ ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আমরা আদালতে যাব এবং একজন নাগরিক হিসেবে আমার অভিমত তুলে ধরবো ।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েসনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে নারীরা নানাভাবে নির্যাতিত ও নিপিড়ীত হয়ে যে আত্মত্যাগ করেছেন, তা পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল। তাঁদের আত্মোৎসর্গের কারণে আমরা পেয়েছি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। এই বীর মুক্তিযোদ্ধা নারীদের পূর্ণবাসন, সাহায্য-সহযোগিতা ও সম্মাননা প্রদান করা আমাদের নৈতিক, সামাজিক এবং রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব।


মন্তব্য