হাতিরঝিলের লেকে নৌযান চালুর-333666 | জাতীয় | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

সোমবার । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১১ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৩ জিলহজ ১৪৩৭


ডাব্লিউবিবি ট্রাস্ট মিলনায়তনে গোলটেবিল বৈঠক

হাতিরঝিলের লেকে নৌযান চালুর প্রস্তাব গবেষকদের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ মার্চ, ২০১৬ ২০:১১



হাতিরঝিলের লেকে নৌযান চালুর প্রস্তাব গবেষকদের

হাতিরঝিলের লেকে নৌযান চালুর প্রস্তাব করেছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের একদল গবেষক। তারা এক গবেষণা প্রতিবেদনে সোনারগাঁ হোটেল-রামপুরা-বারিধারা-বনানী রুটে নৌ নেটওয়ার্ক গড়ে তোলা হলে যানজট কমবে বলে আশা প্রকাশ করেছে।

আজ মঙ্গলবার ডাব্লিউবিবি ট্রাস্ট মিলনায়তনে বুয়েট ও ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ (ডাব্লিউবিবি) ট্রাস্ট আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে তারা এই প্রস্তাবনা উত্থাপন করেন। বৈঠকের শুরুতে এ সংক্রান্ত প্রস্তাবনা উত্থাপন করেন গবেষক দলের সদস্য সুমাইয়া তাবাসসুম, সাদিয়া চৌধুরী, মাহজাবিন রহমান, কাশফিয়া নেহরিন ও আহমেদ জাকারিয়া।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, বর্তমানে যানজটের কারণে গুলশান, বনানী থেকে বাংলা মোটর, পান্থপথ, কারওয়ান বাজার সড়কে পথে প্রায় দুই থেকে তিন ঘন্টা সময় লাগে। গুলশান লেক এবং হাতিরঝিলে নৌযান চালুর মাধ্যমে বারিধারা, বনানী থেকে সোনারগাঁ হোটেলের পেছন পর্যন্ত আধা ঘন্টায় পৌঁছানো সম্ভব। আরো বলা হয়, গুলশান-বনানী লেকে ৪ দশমিক ৮১ বিলিয়ন লিটার পানি ধারণ ক্ষমতা রয়েছে, যা আমাদের জলবদ্ধতা হ্রাস ও লেক সংলগ্ন স্থানসমূহকে আরো বেশি প্রাণবন্ত করা সম্ভব হবে।

বুয়েটের নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. ইশরাত ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা) চেয়ারম্যান আবু নাসের খান, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্লান্যার্সের জেনারেল সেক্রেটারী ড. আকতার মাহমুদ, বাপার সাবেক সাধারণ সম্পাদক মহিদুল হক খান, বুয়েটের শিক্ষক মো. মুসলেহ উদ্দিন, হেলফব্রীজের আঞ্চলিক পরিচালক দেবরা ইফরইমসন, সাংবাদিক নিখিল ভদ্র, উন্নয়ন ধারা ট্রাস্টের আমিনুল রসুল বাবুল, ডাব্লিউবিবি ট্রাস্টের প্রগ্রাম ম্যানেজার মারুফ হোসেন, নিরাপদ সড়ক চাই-এর মিরাজুল মঈন জয়।

বক্তাগণ বলেন, পরিকল্পিতভাবে এই খাল-বিল, জলাশয় এবং লেকগুলোকে ব্যবহার করা হলে তা যেমনি গণপরিবহণ হিসেবে আমাদের যাতায়াতের ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখবে, ঠিক তেমনি মানুষের গণপরিসরের চাহিদাও পূরণ করবে। অভ্যন্তরীন নৌপথ চালু হলে ঢাকা শহরের যানজট সমস্যা সমাধানের একটি প্রকৃত সমাধান হবে বলে তারা দাবি করেন।

মন্তব্য