বিচারপতির বক্তব্য প্রত্যাহার করা-332434 | জাতীয় | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১২ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৪ জিলহজ ১৪৩৭


বিচারপতির বক্তব্য প্রত্যাহার করা উচিত : মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ মার্চ, ২০১৬ ১৪:২৪



বিচারপতির বক্তব্য প্রত্যাহার করা উচিত : মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার নিয়ে মন্তব্য করায় প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে তার পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর বিষয়টি ভেবে দেখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী মোজাম্মেল হোসেন। আজ শনিবার রাজধানীর ধানমণ্ডির বিলিয়া মিলনায়তনে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি আয়োজিত এক সভায় এ আহ্বান জানান মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী। মোজাম্মেল হক বলেন, মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলা নিয়ে প্রধান বিচারপতি যে বক্তব্য দিয়েছেন তার বক্তব্য প্রত্যাহার করতে। আর সেটা তিনি প্রত্যাহার না করলে পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর বিষয়টি তার ভেবে দেখা উচিত।

উল্লেখ্য, মীর কাসেম আলীর আপিল মামলা শুনানিকালে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রধান বিচারপতি বলেছিলেন, রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এবং তদন্ত সংস্থা যে গাফিলতি করেছে এ জন্য তাদের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো উচিত। তিনি বলেন, আমরা রাষ্ট্রপক্ষের মামলা পরিচালনায় খুবই মর্মাহত। মামলার এভিডেন্স দেখলে, এগুলো পড়লে আমাদের খুব কষ্ট লাগে। মামলাগুলো যখন আমরা পড়ি, তখন আমাদের গা ঘিনঘিন করে তাদের মামলা পরিচালনা দেখে। সব মামলায় এটা হয়ে আসছে।

এরপর প্রধান বিচারপতি অ্যাটর্নি জেনারেলকে বলেন, এত হাফ হার্টেড হয়ে আপনারা মামলা চালান কেন? প্রধান বিচারপতি আরও বলেন, প্রসিকিউশন, তদন্ত সংস্থার পেছনে রাষ্ট্রের লাখ লাখ টাকা খরচ হচ্ছে। কিন্তু তারা এসব কী মামলা পরিচালনা করছে? ট্রাইব্যুনালে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা শুধু ব্যস্ত টিভিতে চেহারা দেখানো নিয়ে। তারা দামিদামি গাড়ি চড়েন আর পুলিশের হুইসেল দিয়ে ঘুরে বেড়ান।

 

মন্তব্য