দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে ৩৩,২৮৭-332220 | জাতীয় | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৫ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৭ জিলহজ ১৪৩৭


দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে ৩৩,২৮৭ মনোনয়ন জমা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ মার্চ, ২০১৬ ২৩:৫০



দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে ৩৩,২৮৭ মনোনয়ন জমা

দ্বিতীয় ধাপের ৬৪৭টি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে ৩৩ হাজার ২৮৭টি মনোনয়ন জমা পড়েছে। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে তিন হাজার ১১১টি, সাধারণ সদস্য পদে ২৩ হাজার ৩৭৭টি ও সংরক্ষিত সদস্য পদে ছয় হাজার ৭৯৯টি মনোনয়ন জমা পড়েছে। মাঠ পর্যায় থেকে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) পাঠানো তথ্যে এসব জানা যায়।

ইসির ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, এসব ইউপি নির্বাচনের জন্য মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ছিল ২ মার্চ, বাছাই ৫ ও ৬ মার্চ, প্রত্যাহারের শেষ সময় ১৩ মার্চ এবং ভোট হবে ৩১ মার্চ।

ইসির সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, দ্বিতীয় ধাপে ৬১টি ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে বিএনপির কোনো প্রার্থী নেই। এই ধাপেও ১৩ ইউপিতে একমাত্র আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। যাচাই-বাছাইয়ে মনোনয়নপত্র বৈধতা পেলে ভোট ছাড়াই এসব স্থানে আওয়ামী লীগদলীয় প্রার্থীরা চেয়ারম্যান পদে জয়ী হতে যাচ্ছেন।

যে ১৩টি ইউপিতে প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন সেগুলো হচ্ছে- কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরের দিঘীরপাড়; গোপালগঞ্জের বোড়াশী, বৌলতলী, দুর্গাপুর, কাঠি; জয়পুরহাটের ধলাহার, দোগাছী, জামালপুর; ভোলা সদরের কাচিয়া, মাদারীপুরের ঝাউদী এবং ফেনীর পরশুরাম উপজেলার চিথিলা, বক্স মাহমুদ ও মির্জানগর ইউনিয়ন পরিষদ।

যে ৬১ ইউপিতে বিএনপির প্রার্থী নেই সেগুলো হচ্ছে- গোপালগঞ্জের চন্দ্রদিঘলিয়া, গোবরা, গোপীনাথপুর, জালালাবাদ, কাজলিয়া, করপাড়া, লতিফপুর, মাঝিগাতি, নিজড়া, পাইককান্দি, রঘুনাথপুর, সাহাপুর, সাতপাড়, সুকতাইল, উরফি, কোটালীপাড়ার আমতলী, বান্ধাবাড়ী, হিরণ, কলাবাড়ী, কুশলা, পিঞ্জুরী, রাধাগঞ্জ, রামশীল, সাদুল্লাপুর, শুয়াগ্রাম; চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডর ৫ নম্বর ইউপি; জামালপুরের বাঁশচড়া, ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলের ধর্মগড়; দিনাজপুরের ফুলবাড়ীর আলাদিপুর, বিরামপুরের দিওড়, পলিপ্রয়াগপুর; পাবনার ফরিদপুর উপজেলার ফরিদপুর; মাদারীপুরের বাহাদুরপুর, ছিলারচর, ধুরাইল, কলিকাপুর, শিরখারা, দুধখালী, কেন্দুয়া ও মুস্তফাপুর; মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানের চিত্রকোর্ট, রাজনগর; পীরগঞ্জের শ্যানেরহাট; নোয়াখালীর কোম্পানিগঞ্জের তেলিখাল ও ইছাকলস ইউনিয়ন পরিষদ।

এছাড়া গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার হিরণ ইউপি ও দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার সুন্দরপুর ইউপিতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির একাধিক প্রার্থী রয়েছে।

প্রধান দুই দল ছাড়াও দ্বিতীয় ধাপে প্রার্থী দিয়েছে জাতীয় পার্টি, জাসদ, বিকল্পধারা, ওয়ার্কার্স পার্টি, ইসলামী আন্দোলন, জেপি, এনপিপি, ইসলামী ফ্রন্ট, সিপিবি, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম, ইসলামিক ফ্রন্ট, বাংলাদেশ ন্যাপ ও জাকের পার্টি।

এ ছাড়া এই ধাপে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ৬৪৮ ইউপিতে ও বিএনপির ৫৮৭ প্রার্থীসহ ১৫টি রাজনৈতিক দলের এক হাজার ৫৫৮জন প্রার্থী রয়েছে। স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করছেন এক হাজার ৫৫৩ জন।

ইসি সূত্রে জানা যায়, প্রথম ধাপের ৭৩৪ ইউপিতে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ৭০টিতে বিএনপি কোনো প্রার্থী দেয়নি। পাশাপাশি ২৫ ইউপিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর কোনো প্রতিদ্বন্দ্বি পাওয়া যায়নি।

ইসি আগেই জানিয়েছে, এবার সারা দেশে ছয় ধাপে ইউপি নির্বাচন হচ্ছে। এরই মধ্যে ছয়টি ভোটের দিনও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এর পরের চার ধাপে ২৩ এপ্রিল ৭১১টি, ৭ মে ৭২৮টি, ২৮ মে ৭১৪টি এবং ৪ জুন ৬৬০টি ইউপিতে ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।

মন্তব্য