kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করলে গণতন্ত্রের শেকড় আরো গভীরে যাবে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ মার্চ, ২০১৬ ২১:০০



'দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করলে গণতন্ত্রের শেকড় আরো গভীরে যাবে'

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, দলীয় প্রতীকে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও পৌরসভা মেয়র নির্বাচন তৃণমূল পর্যায়ে নেতৃত্বের বিকাশ ও গণতান্ত্রিক চর্চাকে শুধু বেগবানই করবে না, সেই সাথে গণতন্ত্রের শেকড় আরো গভীরে যাবে। আজ শুক্রবার বাংলাদেশ ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বাংলাদেশ জাতীয় পল্লী উন্নয়ন সমবায় ফেডারেশনের উদ্যোগে ৩১তম বার্ষিক সাধারণ সভা উপলক্ষে ‘টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিতকল্পে দ্বি-স্তরবিশিষ্ট কৃষক সমবায় সমিতিসমূহের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দরিদ্র ও প্রান্তিক কৃষক, মহিলা ও বিত্তহীন মানুষদের সংগঠিত করে আত্ম-কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে ১৯৭৩ সালে বিআরডিবি’র সহযোগী সংগঠন হিসেবে ‘বাংলাদেশ জাতীয় পল্লী উন্নয়ন সমবায় ফেডারেশন’ গঠন করেন। এছাড়া সমবায়ের অর্থনৈতিক ভিত্তি শক্তিশালী করতে বিপুল পরিমাণ সম্পদ কেন্দ্রীয় এবং জাতীয় সমবায় সমিতিতে হস্তান্তর করেন।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত রূপকল্প ২০২১ অনুযায়ী দারিদ্র্যের হার শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনাসহ দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

তিনি আরো বলেন, এ অঙ্গীকারের আলোকে মানবসম্পদ ও স্থানীয় সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রতিটি বাড়িকে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে গড়ে তুলতে ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্প এবং দারিদ্র্য বিমোচনে বিআরডিবি’র অধীন বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এ সকল প্রকল্পসমূহের মাধ্যমে সমবায়ের মূলমন্ত্রকে কাজে লাগিয়ে দেশের উন্নয়নে তথা নিজেদের অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করা সম্ভব।

এ ছাড়াও মন্ত্রী উপজেলা কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতির সদস্যদের সমিতির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায়ে নেতৃত্ব গড়ে তোলা ও আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়নে কাজ করতে উপস্থিত সমবায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান।

ফেডারেশনের সভাপতি মো. ইসরাফিল আলম এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব এম এ কাদের সরকার, সমবায় অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মফিজুল ইসলাম, বিআরডিবি’র মহাপরিচালক আব্দুল কাইয়ুমসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

এর আগে তিনি বিআরডিবি’র সমবায়ীদের মধ্যে ভর্তুকির ৪র্থ কিস্তির ৩৭ কোটি টাকার চেক বিতরণ করেন। অনুষ্ঠানে দেশের সকল উপজেলা কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতির চেয়ারম্যানগণ উপস্থিত ছিলেন।

 


মন্তব্য