kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পুলিশের ওপর হামলা : মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ, ৪ পুলিশ আহত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ মার্চ, ২০১৬ ১৯:৪২



পুলিশের ওপর হামলা : মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ, ৪ পুলিশ আহত

নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সিদ্ধিরগঞ্জে দুই মাদক বিক্রেতাকে গ্রেপ্তারে অভিযানে যাওয়া পুলিশের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় দুইপক্ষের ধস্তাধস্তিতে পুলিশের গুলিতে এক মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

আহত হয়েছেন পুলিশের এক এসআইসহ আর তিনজন কনস্টেবল। তাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আজ শুক্রবার দুপুর ১২টায় সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি টিসি রোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাখায়াত হোসেন জানান, আজ সকাল ৭টার দিকে টিসি রোড এলাকার জনৈক আব্দুল লতিফ মিয়াকে কুপিয়ে আহত করেন তার ছোট ভাই মাদক ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেন ও তার সহযোগী মোক্তার হোসেন ওরফে ডাকাত মোক্তার। এ ঘটনায় আহত আব্দুল লতিফ বাদী হয়ে দেলোয়ার হোসেন ও মোক্তারকে আসামি করে একটি মামলা করেন।

তিনি আরো জানান, দুপুর ১২টার দিকে তার নেতেৃত্বে পুলিশ মাদক ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেনকে গ্রেপ্তার করে। তখন মোক্তার হোসেন ওরফে ডাকাত মোক্তারসহ অন্যান্য সহযোগীরা পুলিশের শটগান ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে দুইপক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। পুলিশকে লক্ষ্য করে মরিচের গুঁড়ো ও ইটপাটকেল ছুড়ে মাদক ব্যবসায়ীদের লোকজন। তখন পুলিশও এক রাউন্ড গুলি ছুড়লে তা দেলোয়ারের শরীরে বিদ্ধ হয়। পালিয়ে যায় মোক্তার হোসেন। এ ঘটনায় তিনি নিজে (এসআই সাখায়াত হোসেন), কনস্টেবল ইকবাল, শাহজাহান ও মজিবুর আহত হন বলে দাবি করেন এসআই সাখায়াত।

এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. সরাফত উল্লাহ জানান, আহত পুলিশ সদস্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। দেলোয়ার ও মোক্তার দুজনেই মাদক বিক্রেতা। তাদের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মাদকের একাধিক মামলা রয়েছে। পুলিশ দেলোয়ারকে গ্রেপ্তার করেছে। মোক্তারকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নারায়ণগঞ্জ জেলার সহকারী পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) মো. ফোরকান শিকদার জানান, আসামি ধরতের গেলে দেলোয়ার ও মোক্তারসহ সহযোগীরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এ সময় তারা পুলিশের অস্ত্র ছিনিয়ে নিতে অস্ত্র ধরেও টানাটানি করেছে। এর ফলে এক রাউন্ড গুলি বের হলে আসলে দেলোয়ার হোসেন গুলিবিদ্ধ হয়।

 


মন্তব্য