kalerkantho


যুদ্ধাপরাধীর একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদণ্ড : মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ মার্চ, ২০১৬ ২০:২৪



যুদ্ধাপরাধীর একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদণ্ড : মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেছেন, যুদ্ধাপরাধীর একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত, মুক্তিযোদ্ধারা অন্য শাস্তি প্রত্যাশা করে না।
তিনি বলেন, কেউ যদি যুদ্ধাপরাধ না করে থাকে তাকে খালাশ দেয়া হোক কিন্তু যুদ্ধাপরাধ প্রমাণিত হলে মৃত্যুদণ্ড ছাড়া অন্য কোন শাস্তি মুক্তিযোদ্ধাদের অপমানিত করে।
তিনি আজ কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
আ ক ম মোজাম্মেল বলেন, মানবতাবিরোধী অপরাধীদের সন্তানরা দেশে বাস করতে পারলেও তাদের কোন ভোটাধিকার ও সরকারি চাকরির অধিকার থাকবে না।
তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নতুন প্রজন্ম গড়ে তুলতে পাঠ্যপুস্তকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস অন্তর্ভুক্ত করা হবে। পাঠ্যপুস্তকে মহান মুক্তিযুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের গৌরবময় ভূমিকার পাশাপাশি যুদ্ধাপরাধীদের ঘৃণ্য তৎপরতাও তুলে ধরা হবে।
তিনি আরো বলেন, বর্তমান পাঠ্যপুস্তকে মুক্তিযোদ্ধাদের ভূমিকা লিপিবদ্ধ রয়েছে কিন্তু এতে নতুন প্রজন্ম জানতে পারছে না কি ঘৃণ্য তৎপরতা যুদ্ধাপরাধীদের ছিল, কত বর্বরতা তারা চালিয়েছিল। তাই নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে এ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।
অনুষ্ঠানে মো রুহুল আমীন,সাবেক সংসদ সদস্য মো.জাফর আলী,উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মাণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মজিবুল হক সমাজী এবং স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় প্রায় ২ কোটি টাকা ব্যয়ে এ কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হয়।


মন্তব্য