kalerkantho


গ্রেপ্তারকৃত আইএসআই সদস্য মেহমুদ তিন দিনের রিমান্ডে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৮ মে, ২০১৫ ২০:৫৫



গ্রেপ্তারকৃত আইএসআই সদস্য মেহমুদ তিন দিনের রিমান্ডে

গাজীপুরে গ্রেফতারকৃত আইএসআই সদস্য খালিদ মেহমুদের তিন দিনের পুলিশ রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। পুলিশের আবেদনের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার গাজীপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক এলিনা আক্তার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
গাজীপুর আদালতের ইন্সপেক্টর মো. রবিউল ইসলাম জানান, পুলিশ দশ দিনের রিমান্ড চেয়ে খালিদ মেহমুদকে বৃহস্পতিবার গাজীপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে। তার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।
উল্লেখ, গত রবিবার সন্ধ্যায় গাজীপুরের শ্রীপুরের ভাংনাহাটি এলাকার ইউনিলাইন্স টেক্সটাইল লিমিটেড কারখানা থেকে পাকিস্তানী নাগরিক ও গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই’র সদস্য খালিদ মেহমুদকে আটক করা হয়।
পাকিস্তানের নাগরিক খালিদ মেহমুদ গাজীপুরের শ্রীপুরের ভাংনাহাটি এলাকার ইউনিলাইন্স টেক্সটাইল লিমিটেড কারখানায় গত বছরের ১৯ নভেম্বর থেকে ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে চাকুরি করে আসছিলেন। তার ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে চলতি মাসের ৬ তারিখ।
তার পিতার নাম মো. আরশাদ। সাং-২৬০/বি, মিল্লাত টাউন, ফয়সালাবাদ, পাকিস্থান। তার পাকিস্থানি নাগরিকত্ব আইডি নং ৬১১০১-১৭৬৭৭২৪-৩, পার্সপোর্ট নং- ইএফ ০১৫৭২৪২। খালিদ মেহমুদ পূর্বে পাকিস্তান বিমান বাহীনিতে কর্মরত থেকে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বেইজ স্থাপনা এবং রাডার টেকনোলজির উপর উচ্চতর ডিগ্রী লাভ করেন।
পরদিন সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ জানান, ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ হবার পরও ওই ফ্যাক্টরিতে পাকিস্থানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই’র এজেন্ট হিসেবে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক নেতৃবৃন্দের পৃষ্ঠপোষকতায় কর্মরত ছিলেন। খালিদ মেহমুদ গার্মেন্ট সেক্টরে অস্থিতিশিলতা সৃষ্টি ও স্বর্ণ চোরাচালানসহ বাংলাদেশ বিরোধী বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিল। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক ব্যক্তি আইএসআইয়ের সদস্য স্বীকার করেছেন বলে পুলিশ সুপার জানিয়েছিলেন।



মন্তব্য