kalerkantho


যা আমরা ভাইরাল করি আর যা করি না! ছিঃ...

রুম্পা সৈয়দা ফারজানা জামান   

১ অক্টোবর, ২০১৮ ১৪:০১



যা আমরা ভাইরাল করি আর যা করি না! ছিঃ...

ছবি কোলাজ -ফেসবুক স্ক্রিন শট

আমরা ভাইরাল করি কাকে! সেফু দা! যে কিনা ‘মদ-মাগী’ নিয়ে বেশ মন খুলে কথা বলেন! হিরো আলম! যার চেহারা নিয়ে আমরা মজা করতে পছন্দ করি!

আমরা ভাইরাল করি কাকে! মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ নামক স্টেজে হওয়া পারিবারিক শো- যেখানে গোবর গনেশ দুটোর একটি ‘উইশ’-এ পানি ঢেলেছে, আরেকজন H2O নামে একটি রেস্তোরাঁর সাথে দর্শকের পরিচয় করিয়েছে! বাই দা ওয়ে, এমন গনেশ এই প্রতিযোগিতায় আরো থাকতে পারে- দুটোই ভাইরাল আপাতত!

আর কি ভাইরাল হয় জানেন! সাকিবের বউ কেন পর্দা করে না! তামিমের বিয়েতে কেন টাকা খরচ করা হয় বা তাসকীনের কেন বিয়ের একবছরের মাথায় বাচ্চা হয়! 

শিশির মানে সাকিবের বউকে নিয়ে জাতির টেনশনের শেষ নেই! গ্রামের ছেলে– তাও আবার একটা বেয়াদপ! তার বাড়িতে এতো সুন্দর বউ- ক্যামনে কি! এটা নিয়ে অনেক টেনশন! কখনো সাকিবের টাইমলাইনে গিয়ে দেখবেন তার ওখানে কত নোংরা ভাষায় তার স্ত্রীকে নিয়ে কথা বলে! অথচ ছেলেটা দেশের জন্য খেলে! বিশ্বের সেরা খেলোয়ারদের একজন! অন্য দেশের লোকজন তাকে খেলতে ডেকে নিয়ে যায় আর আমাদের নিজের দেশের লোক তার স্ত্রীর উদ্দেশ্যে লিঙ্গ-প্রতীক প্রদর্শন করে! আবার বলেন- ‘ইসলামের প্রসারে সাকিবের বউকে পর্দা করতে বলেছে!’ মানে সত্যি! যারা বলছেন তারা কি নিজেদের ধর্মটাকে সঠিকভাবে পালন করছেন?

তামিমের বিয়ের সময়ের একটা নিউজে কিছু কমেন্ট পড়ে আমি বেক্কল হয়ে গিয়েছিলাম! কেন সে টাকা না বিলিয়ে উড়িয়ে দিল! কে বলেছে তামিমরা অন্যের জন্য করে না! আর করলেও বা না করলেও তার বিয়েতে সে কী আয়োজন করবে সেটাতো তার পারিবারিক ব্যপার! যে বলছেন- সে কী দুটো বাচ্চার পড়ার ভার নিয়েছেন! তামিম তো অন্তত একশ বাচ্চার খেলোয়ার হবার স্বপ্নকে জাগিয়ে রেখেছে! 

এবার তাসকীন! এই ছেলেটা কবে বিয়ে করেছে– কবে বাচ্চা হলো সেটার টাইমলাইন সুন্দর করে ব্যাখ্যা করেছেন! অনেকেই বলছেন– এটার দরকার ছিলনা! আসলেই ছিল না! কিন্তু বাবা হিসেবে তার গায়ে লাগতেই পারে! অথচ আমাদের লজ্জা লাগছে না আরেকজনের বিছানার গল্প জানতে চেয়ে! তার স্ত্রীর শেষ পিরিয়ডের তারিখ যে জানতে চায় নাই- এটাই এখন বড় পাওয়া! 

আচ্ছা বলেন তো এরা কেন দেশে থাকবে!? কাদের জন্য?! যে দেশের লোক তাদের দেশের নায়কদের জন্য, শিশুর জন্য, তারুণ্যের জন্য মানসিক বল না হয়ে ‘খল চরিত্রে’ থাকে– তাদের জন্য? কী দরকার! বরং এরা খেলুক পয়সার জন্য। এরপর চলে যাক! কেন তাদের এদেশে থাকতে হবে! যখন এদের ফর্ম চলে যাবে- তখন এদের পাশে নিজের উপার্জন ছাড়া আর কি থাকবে! শুনি?

এদেশে থাকবে তারা যারা পাবলিক ইভেন্টে নিজের আত্মীয়-স্বজন আর পছন্দের লোক বসিয়ে রাখে! বলছি মিস বাংলাদেশের কথা! গতবার এভ্রিলের ওপর দিয়ে চালিয়ে নিলেও এবার ধরা সাধারণ জ্ঞানে! প্রশ্ন হলো লাইভে আসার আগে এদের কোনও গ্রুমিং হয় না? সরি? না হলে পাঁচশ’র প্রশ্ন ব্যাংক ধরিয়ে দিত আগেই! একটার উত্তর যেন অন্তত দিতে পারে! 

আচ্ছা মানলাম- ইংরেজি পারে না! সেক্ষেত্রে তাকে কেন ইংরেজিতে প্রশ্ন করতে হবে! আয়োজকরা কি দেখেনি অনেক দেশে এধরনের প্রতিযোগী দোভাষী ব্যবহার করে! মানলাম- তুমি বিজ্ঞান বোঝ না! তোমার বিচারক কী ‘উল্কা-পিণ্ডর’ ইতিহাস জানে! মানে এরা যাবে দেশকে রিপ্রেজেন্ট করতে! সত্যি! যেখানে আমাদের রিয়াদ- মুশফিক জাতীয় পতাকা তুলে ধরে, সেখানে এরা যাবে? এদের এই লাইসেন্স কে দেয়? 

আয়োজক কার কী? কেউ কী খবর রাখে! মনে পড়ে এই আয়োজকেরই মনে হয় করা একটি ইভেন্টে শাহরুখ খান এসেছিল– তখন আয়োজকের কন্যার ‘ইচ্ছে’ হয় তাই স্টেজে উঠে শাহরুখের সাথে নেচেছিল! সেটা মানুষ পয়সা খরচ করে দেখেছেও! 

দুনিয়াতে এতো আইন আছে- এদের দেখার কোনও আইন নেই?
 
এবার আসেন যা ভাইরাল হয় না! গতকাল রবিবার চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে মেয়েদের সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ১৭-০ গোলে পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়ে জিতেছে বাংলাদেশ। এই দলের কয়টা মেয়ের নাম জানেন? কয়টা মেয়ের বেতন কত সেটা জানেন! অথচ আজ একটা মেয়ের একটা টিশার্ট পরা ছবি আসুক, তার বক্ষ-বন্দনায় মেতে উঠবেন সবাই! আপনারা তো সাকিবের বাচ্চা মেয়েটাকেও ছাড়েন না!

বাবা তার মেয়েকে স্নেহে জড়িয়ে ধরে রেখেছেন আর কমেন্ট এলো- ‘বাচ্চার দুধে হাত দিসে- খবিস ব্যাটা!’
বাই দ্যা ওয়ে ‘খবিসটা’ কে আসলে? ছিঃ

আপনি – আমি এবং আমরা! একটা প্রজন্মের ‘শেষ’ দেখার এবং করার প্রতিযোগিতায় যারা আছি তারা! আপনাদের সাথে মিস বাংলাদেশ প্রতিযোগিদের পার্থক্য কোথায়? আপনিও ‘কালা পারানা’ (সাকিব খেলা পারে না- রোমান হরফে এমন কথা লিখতে গিয়ে তারা লেখেন sakib kala parana) তারাও ‘কালা পারানা’। 

বিষয়টি মন দিয়ে পড়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ!

 রুম্পা সৈয়দা ফারজানা জামান : সংবাদকর্মী, লেখক

[নাগরিক মন্তব্য বিভাগে প্রকাশিত লেখা ও মন্তব্যের দায় একান্তই সংশ্লিষ্ট লেখক বা মন্তব্যকারীর, কালের কণ্ঠ কর্তৃপক্ষ এজন্য কোনোভাবেই দায়ী নন।]



মন্তব্য

alauddin commented 10 days ago
ধর্মীয় শিক্ষা বর্বর মানুষগুলাই এই সব কমেণ্ট আর ভাইরাল করে।