kalerkantho


হে তারছাড়া যুগের প্রজন্ম, তারছিঁড়া টাইপের কাজকাম...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ মার্চ, ২০১৮ ১৭:৩২



হে তারছাড়া যুগের প্রজন্ম, তারছিঁড়া টাইপের কাজকাম...

সাবেক আমলের রোটারি ডায়ালার ফোনে কথা বলছেন জেমস বন্ড নায়ক শ্যন কনারি- প্রতীকি ছবি

তোমরা যারা Wi-Fi প্রজন্ম অর্থ্যাৎ Wireless Communication মানে তারবিহীন যোগাযোগ যুগে জন্ম নেয়া ভাগ্যবান তারা এরকম দৃশ্যের (১ম ছবি) সাথে পরিচিত নও।

আর তাই টেলিফোন নামক যন্ত্রের ত্যানা প্যাঁচানো তারের মাথায় যুক্ত হ্যান্ডসেট কানে দিয়ে কথা বলার ভংগিমায়, ফিল্ম লোডেড ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলার মর্ম ( তোমাদের ভাষায় feelings) কখনোই u guys বুঝবে না।

বর্তমানে আমরা তার ছাড়া যোগাযোগ ব্যবস্থার অনেক অনেক ফ্যাসিলিটি ভোগ করছি প্রতিনিয়ত, কাজ কর্ম যোগাযোগ কেনাকাটা ব্যবসা বানিজ্য সবই সহজ হয়েছে আগের চেয়ে। যদিও এসব ফ্যাসিলিটি কখনও কখনও ফ্যাসাদলিপিতে পর্যবসিত হয় বিশেষভাবে তোমাদের অপব্যবহার এর কারণেই।

আমরা বুলি সর্বস্ব একটা সময় পার করেছি অর্থাৎ চাপার জোড়ে কর্ম সাধন। এসব চাপার সারমর্ম একটাই- আই এম দ্য চ্যাম্পিয়ন বাকি সব বেঈমান, আমিই বস্ আর বাকিরা চিকেন (এর সাথে থাকে যিমুন এট্টু সস্)! এসব কিছুর পরও খেয়ে-পড়ে আনন্দ বেদনায় আমাদের দিনগুলো একেবারে খারাপ কাটেনি।

তোমরাও যদি সেই চাপাবাজিই সম্বল করে কম্বলের ভেতর রাইতভর ফেসবুক গুতাও তাহলে দুবেলা হুটকি আর হুগনা মরিচ পোড়া দিয়ে ভাত খেয়েও দিন পার করতে পারবা না!! 

হাসির কথা না, হার্ড ফ্যাক্ট হইলো কঠিন বাস্তবতা। হাতে একটা মোবাইল মানে দুনিয়া হাতের মুঠোয়। কথা হলো তেনারা কষ্ট করে এই সিস্টেম আবিষ্কার করছে ওয়াই ফাই ব্যবহার করে হাইফাই ভাব নেয়ার জন্য না, বরং শিক্ষা-দীক্ষা থেকে শুরু করে রাজনীতি ,অর্থনীতি, ব্যবসা-বাণিজ্যসহ দুনিয়ার সবকিছু নিজেরা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য। প্রয়োজনে অন্যদের বাঁশফাই দিয়ে নিজেরা আরামে থাকার জন্য। 

তারা হলো রিয়েল স্মার্ট পিপল। তোমাদের জন্যেও উন্মুক্ত আছে সুযোগ, তাদের আবিষ্কৃত টেকনোলজি সঠিকভাবে আয়ত্তে এনে, কাজে লাগিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে টিকে থাকার, ভালভাবে, আয়েশে... 

সুতরাং হে তার-ছাড়া যুগের প্রজন্ম, তারছিঁড়া টাইপের কাজকাম বাদ দিয়ে সত্যিকারের স্মার্ট হবার যুদ্ধে নামো।

(নূর হকের ফেসবুক পেজ থেকে)



মন্তব্য