kalerkantho


ভ্যালেন্টাইন এলেই 'ফ্ল্যাট' টাইপের নোংরা কথা কেন?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৯:০০



ভ্যালেন্টাইন এলেই 'ফ্ল্যাট' টাইপের নোংরা কথা কেন?

‘লিটনের ফ্ল্যাট’ টাইপের চিন্তা ভাবনায় মগ্ন সবাই। কে কার ফ্ল্যাটে যাইতেছে, কে কার হোটেলে যাইতেছে, কে কারে কী করতেছে, কার ভার্জিনিটি নষ্ট হইতেছে এইসব নিয়ে কত কত নোংরা চিন্তা। ফেব্রুয়ারি মাসের প্রায় অর্ধেক সময় জুড়ে এই বিষয়টা চলছে বেশ কয়েক বছর ধরে। খুব অবাক হই যখন দেখি অনেক দায়িত্বশীল মানুষ পর্যন্ত আজ নোংরা কথা লিখতেছে।

সত্যি বলছি দেখতে খুব খারাপ লাগে। ভালোবাসা দিবস মানে যে প্রেমিক প্রেমিকারা শুধু ফ্ল্যাটে ফ্ল্যাটে গিয়ে সময় কাটায় এই ধারণা কেন হবে? রাস্তাঘাট, পার্ক-উদ্যান, রেস্টুরেন্ট, নদী, সমুদ্র, বিল, মিউজিয়াম এসব জায়গায়ও তো মানুষ যায় নাকি? আমিতো রাস্তাঘাটে অনেক কাপল দেখছি। এমনকি চায়ের দোকানেও অনেকে বসে আছে। অফিসে আসার সময় দেখলাম শপিংমলের সিঁড়িতেও আড্ডা দিচ্ছে অনেকে। তো?

আচ্ছা কেউ যদি কাউকে ফ্ল্যাটে নিয়ে যায়ও তাতে আপনার কী? এখন ধরেন আপনি আমারে জিজ্ঞেস করতে পারেন, কেউ যদি ফ্ল্যাটে যাওয়া নিয়ে লেখে তাতে আপনার কী?

আমার অনেক কিছু। আমার খারাপ লাগে। আমি প্রেম করে বিয়ে করছি। একজন প্রেমিক প্রেমিকা যে শুধু ফ্ল্যাটে সময় কাটানোর জন্যই প্রেম করেনা এইটা আমি খুব ভালো করেই বুঝি। আপনাদের অসুস্থ মন বোঝেনা।

কেউ যদি ফ্ল্যাটে যায় সে যাবে। আপনি যাইতে পারতেছেন না বইলা তারে নিয়ে নোংরা কথা লিখবেন? ধরেন আপনার বোনটাও প্রেম করে। ধরলাম সে তার ভালোবাসার মানুষরে নিয়ে কখনোই ফ্ল্যাটে যাওয়ার মতো নোংরা চিন্তা করেনাই। সে যদি আপনার এই লেখাটা দেখে তাহলে তার মনের অবস্থা কী হবে? কখনো প্রেম না করা আপনার ছোট ভাইটার রুচিকে আপনি কোনদিকে নিয়ে যাচ্ছেন?

আমি খুব বেশি সিরিয়াস হইনা। কিন্তু আপনাদের নোংরামোটা নিতে পারতিছিনা তাই লিখলাম। প্লিজ ভাই, থামেন।

আপেল মাহমুদ, চিত্রনাট্য লেখক, মিডিয়া কর্মী



মন্তব্য

nuralam commented 7 days ago
এ পৃথিবীতে ভালবাসা বলতে কিছু নেইঃ- ‘ভালবাসা’ বলতে এ পৃথিবীতে এটা একটা মিথ্যা প্রবঞ্চনা ছাড়া আর কিছুই নয় । এটি একটি ধোঁকা । ভালোবাসার নামে একজন আর একজনকে ধোঁকা দেয় । একজন একজনকে ভালবাসার সময় শুধুই দুজনে দুজনার ভাল কথাগুলো বলে থাকে । হয়ত যেটি মিথ্যা , তার নিজের মধ্যে নেই, সেটিও সে‘হাঁ ‘বলে চালিয়ে যায় । পরবর্তীতে যখন এটি মিথ্যা প্রমানিত হয় , তখন গণ্ডগোলের সূত্রপাত হয় দুজনার মধ্যে । তখন ‘ভালবাসা’ জানালা দিয়ে পালিয়ে যায় । তখন যে যার ইচ্ছায় বা নিজের স্বার্থে টিকে থাকে অথবা আলাদা হয়ে যায়ে । এ পৃথিবীতে মানুষ যে যার স্বার্থ নিয়ে চলে । প্রত্যেকে যে যার স্বার্থের জন্য লালায়িত । নিজের স্বার্থের জন্য একজন আর একজনকে খুন করতেও দ্বিধা বোধ করে না । এ পৃথিবী বড়ই নিষ্ঠুর !