kalerkantho

সরকারকে কঠোর ভূমিকা নিতে হবে

২৩ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সড়ক দুর্ঘটনায় মানুষের মৃত্যু হবে—এটাই তো স্বাভাবিক। কাজেই এ নিয়ে কথা বলার তো কিছুই দেখি না। অথচ কী নির্মম এ ভাবনা। এ ক্ষেত্রে আমার অভিমত—এর আগে সড়ক দুর্ঘটনায় সব মৃত্যুর সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া উচিত। প্রতিদিন উদ্বেগজনক হারে সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে বাংলাদেশে, ঘটছে প্রাণহানি। পথে বসছে অনেক পরিবার। দেশের অনেক প্রতিভাবান মানুষের প্রাণ যাচ্ছে সড়ক দুর্ঘটনায়। অনেক পরিবারের আশার আলো যানবাহনের চাকায় পিষ্ট হচ্ছে। প্রতিদিনই আসছে মর্মান্তিক সব সড়ক দুর্ঘটনার খবর। আমাদের দেশে যোগাযোগব্যবস্থার উন্নতি হয়েছে। নতুন নতুন সড়ক অবকাঠামো নির্মিত হচ্ছে। মহাসড়কে একাধিক লেন হচ্ছে। বিপজ্জনক বাঁক ঠিক করা হচ্ছে। কিন্তু কেন রোধ করা যাচ্ছে না প্রাণঘাতী দুর্ঘটনা? এভাবে চলতে থাকলে সড়কে বিশৃঙ্খলা আরো বাড়বে। কাজেই এখনই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে তৎপর হতে হবে। বৈধ চালক ছাড়া কারো হাতে যানবাহন তুলে দেওয়া যাবে না। ক্ষতিপূরণ আদায়ের ব্যবস্থা থাকতে হবে। সড়ক-মহাসড়ক থেকে ফিটনেসবিহীন যানবাহন তুলে দেওয়ার পাশাপাশি দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা গেলে দুর্ঘটনা অনেকটাই কমে আসবে। পরিশেষে বলার অপেক্ষা রাখে না, শুধু বিআরটিএর ভ্রাম্যমাণ আদালত দিয়ে এসব অনিয়ম বন্ধ করা যাবে না। পরিবহন খাতের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার জন্য সরকারকে কঠোর ভূমিকা নিতে হবে। এ ক্ষেত্রে সরকার দ্রুত পদক্ষেপ নেবে, এমনটাই আমাদের কাম্য।

বিলকিছ আক্তার

সরকারি ম্যাটস, টাঙ্গাইল।

মন্তব্য