kalerkantho

সমান অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে

৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



যুগ যুগ ধরেই আমাদের সমাজে নারীরা অবহেলিত ও অধিকারবঞ্চিত রয়েছে। পরিস্থিতির কারণে নারীরা নিজেদের পুরুষের তুলনায় দুর্বল ভাবে। অথচ উপযুক্ত শিক্ষা ও অনুকূল পরিবেশ পেলে তারাও পুরুষের সমকক্ষ হয়ে উঠতে পারে। দীর্ঘ আন্দোলন ও প্রচেষ্টার ফলে নারীশিক্ষা ও নারীর ক্ষমতায়নে অনেক অগ্রগতি হয়েছে। দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে নারীর অংশগ্রহণ বাড়লেও বেতন ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধার ক্ষেত্রে নারীদের যথেষ্ট বৈষম্যের সম্মুখীন হতে হয়। দেশের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের অন্যতম খাত পোশাকশিল্পে কর্মরত শ্রমিকের ৮৫ শতাংশ নারী হলেও তাদের অনেক ধরনের হয়রানির শিকার হতে হয়। অনেক শিক্ষিত নারীকেও ঘরের বাইরে কাজ করার সুযোগ দেওয়া হয় না। বেশির ভাগ নারীর স্বাধীনতা পুরুষের ইচ্ছার ওপর নির্ভর করে। পরিবার ও সমাজব্যবস্থা এখনো পুরুষের মতো নারীর স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে ততটা আগ্রহী নয়। নারীদের এই পিছিয়ে থাকার বড় কারণ নিরাপত্তা ঝুঁকি। দেশ ও জাতির জন্যই সব ক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে। নারীসমাজকে আরো সাহসী ও সচেষ্ট হতে হবে।

বিপ্লব বিশ্বাস

ফরিদপুর।

মন্তব্য