kalerkantho


অপারেটরগুলোর জ্বালাতন আর সয় না

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



জ্বালাতন মনে করতাম না, যদি মোবাইল ফোন অপারেটর মোবাইল ফোনে বলত, ‘আপনি বহু দিন ধরে আমাদের কম্পানির সিমটি ব্যবহার করছেন, এ জন্য আপনার পুরস্কার আছে।’ কিংবা যদি বলত, ‘আপনি গত মাসে বা গত বছর এত টাকা ব্যয় করেছেন বলে আপনার পুরস্কার আছে। আপনি আমাদের কম্পানির সার্ভিস সেন্টারে আসুন। পুরস্কার নিয়ে যান।’ পুরস্কার হিসেবে বই, কলম, মিষ্টির প্যাকেট দিতে পারে কম্পানিগুলো। দেয়াল পঞ্জিকাও দিতে পারে। অপারেটররা মোবাইল ফোনে তা না জানিয়ে শুধু বলে, আরেকটি সিম নিতে পারেন, এমবি নিতে পারেন, প্যাকেজ নিতে পারেন, গান নিতে পারেন আর এ জন্য এত টাকা লাগবে। মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের টাকা কিভাবে অপচয় করাবে, এ ধান্ধায় থাকে অপারেটররা। তারা ব্যবসা ছাড়া কিছুই বোঝে না। মোবাইল অপারেটররা গ্রাহকদের যখন-তখন ফোন দিয়ে বিরক্ত করেই যাচ্ছে। আমরা চাই না, আমাদের পকেটের টাকার আর অপচয় হোক। ব্যাবসায়িক কারণে অপারেটররা যেন যখন-তখন ফোন না দেয়। মোবাইল অপারেটররা তো বিরক্তটিরক্ত করে, কিন্তু টিঅ্যান্ডটির ল্যান্ড ফোনের অপারেটররা তো ‘চিরনিদ্রায় শায়িত’। কার ল্যান্ড ফোন অকেজো হয়ে পড়ে আছে—সেদিকে তাদের হুঁশ নেই। গ্রাহকরা জানে, কমপ্লেইন করলে ওরা বাসায় আসবে আর দিতে হবে বকশিশ। ল্যান্ড ফোন ব্যবহারকারীরা অচল ল্যান্ড ফোনকে জ্বালা মনে করছে শুধুই অপারেটরের কারণে।

লিয়াকত হোসেন খোকন

রূপনগর, ঢাকা।



মন্তব্য