kalerkantho


যাত্রী ও পথচারীদের সচেতনতা চাই

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



সড়কে শৃঙ্খলার জন্য দায়িত্বশীলদের আরো মনোযোগী হওয়া উচিত এবং তদন্ত কমিটির রিপোর্টের আলোকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া আবশ্যক। সড়ক দুর্ঘটনা এমন কোনো ঘটনা নয়, যা এড়ানো সম্ভব নয়। চালক যদি যোগ্য-দক্ষ-অভিজ্ঞ হয় ও যানবাহন চালনার সময় শারীরিকভাবে ফিট থাকে, যানবাহনের যদি ফিটনেস থাকে ও যান্ত্রিক দিক দিয়ে ত্রুটিমুক্ত থাকে, গতিবেগসহ সার্বিক বিষয়ে চালক ট্রাফিক বিধি-বিধান মেনে চলে, সড়ক-মহাসড়ক যদি যানবাহন চলাচলের পূর্ণ উপযোগী থাকে, তাহলে দুর্ঘটনা হ্রাস করা খুবই সম্ভব। যে চালক বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে যাত্রীদের প্রাণহানি ঘটায়, তাদের হাতে সাধারণ যাত্রীরা যেন জিম্মি হয়ে পড়েছে। দুর্ঘটনা রোধ করে যাত্রীদের নিরাপত্তা দেওয়ার দায়িত্ব প্রথমত যে সংস্থা যানবাহনের ফিটনেস সনদ ও চালকের লাইসেন্স প্রদান করে তাদের; দ্বিতীয়ত, সড়ক-মহাসড়কে যানবাহন নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের এবং তৃতীয়ত, যানবাহন মালিকদের। এই তিন মহলের সতর্কতা ও দায়িত্বশীলতাই দেশে সড়ক দুর্ঘটনা কমিয়ে আনতে পারে। যাত্রীদেরও সচেতন হতে হবে।

মেনহাজুল ইসলাম তারেক

মুন্সিপাড়া, পার্বতীপুর, দিনাজপুর।



মন্তব্য