kalerkantho


মূল হোতার যাবজ্জীবন কেন?

১৩ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



১৫ আগস্টের বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডেরই ধারাবাহিকতা ছিল ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা। তিনি বেঁচে গেলেও সেদিনের হামলায় নিহত হন ২৪ জন। রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা, তথ্য-প্রমাণ নষ্ট করা, জজ মিয়া নাটক—প্রতিটি আয়োজনই ছিল বাংলাদেশে সন্ত্রাসের শাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে। পরিষ্কার হয়ে যায়, খালেদা জিয়ার নেতৃত্বাধীন তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা, সিআইডি ও পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের অনেকে ২১ আগস্ট হামলার ঘটনায় প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত হয়েছিলেন। বিএনপির উপমন্ত্রীর বাসভবনে বৈঠক করেই এ হামলার পরিকল্পনা করা হয়। হামলার বিষয়টি অনেক আগে থেকে তারেক রহমান জানতেন এবং তাঁর সমর্থন ছিল। আসামিদের জবানবন্দি অনুযায়ী স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টুসহ ষড়যন্ত্রে যুক্ত ছিলেন। রায় হয়েছে। কিন্তু আমি রায়ে পুরোপুরি সন্তুষ্ট নই। কারণ যদি তারেক রহমান এ ঘটনার মূল হোতা হয়ে থাকেন, খালেদা জিয়া কিভাবে নির্দোষ হন। যদি রাষ্ট্রের সব সংস্থা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থেকে থাকে, রাষ্ট্রের প্রধান কিভাবে এর বাইরে থাকেন? মূল হোতার কিভাবে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়? আমি বিহ্বল।

মো. হাসানুর রহমান

মাজিহাট, কুষ্টিয়া।



মন্তব্য