kalerkantho


সবাইকে আরো বেশি সতর্ক হতে হবে

২৮ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



সাধারণ মানুষ এখন মার্কার চেয়ে প্রার্থীর যোগ্যতাকেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকে। প্রতিটি নির্বাচনেই ভোটারদের এই মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে। ভবিষ্যতেও দেশের মানুষ সৎ, যোগ্য ও দেশপ্রেমিক প্রার্থীকেই ভোট দেবে। অপচেষ্টা চালিয়ে নির্বাচন বানচালও করা যাবে না। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত খুলনা ও গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে বিতর্কিত করতে অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবেই চেষ্টা চালানো হয়েছিল বলে মনে হয়। তবে তা সম্ভব হয়নি। গত দুটি নির্বাচনে যে অনিয়ম ও বিচ্যুতি দেখা গেছে, তা পুরো নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে পারেনি। কিন্তু পরে নির্বাচন নিয়ে দেশি-বিদেশি বিভিন্ন মহল থেকে যেভাবে একই সুরে মন্তব্য করা হয়েছে, তা থেকে অনুমান করা যায়, বাংলাদেশের গণতন্ত্র ও আগামী নির্বাচন নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। আসন্ন তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে বিতর্কিত করতেও নানা ধরনের অপপ্রচার ও অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। ষড়যন্ত্রকারীদের প্রধান উদ্দেশ্য হলো আমাদের নির্বাচনব্যবস্থাকে বিতর্কিত করে আগামী সংসদ নির্বাচন বানচাল অথবা বাধাগ্রস্ত করা। তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনের দিন একটি কেন্দ্রেও যাতে কোনো অনিয়ম না হয়, সে ব্যাপারে আগে থেকেই পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিতে হবে।

বিপ্লব বিশ্বাস

ফরিদপুর।



মন্তব্য