kalerkantho


অদ্ভুত

বাস যখন বাসস্থান

সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



বাস যখন বাসস্থান

বাসে মানুষ ভ্রমণ করে—এটাই তো স্বাভাবিক! কিন্তু কখনো কখনো বাসকে বাড়ি হিসেবেও ব্যবহার করা যায়। ইদানীং এটা একেবারে বিরল ঘটনা নয়, তবে দরিদ্রদের জন্য এমন বাসস্থানের ব্যবস্থা করাটা একটু অভিনবই।

এই অন্য রকম চিন্তা বাস্তবে রূপ দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের পোর্টসমাউথের দুই নারী স্যামি বারক্রোফট ও জোয়ান ভাইনস। চ্যারিটি দল দ্য রাকস্যাক প্রজেক্টের জন্য কাজ করেন স্যামি এবং জোয়ানে। চারপাশের অসহায় আর দুস্থ মানুষদের সাহায্য করতে ভালোবাসেন। এবার যেমন শীতের ঠাণ্ডায় কষ্ট পাওয়া ঘরহারা মানুষগুলোর জন্য কিছু করার কথা ভাবলেন দুজন। আর সেখান থেকে দোতলা একটি অব্যবহৃত বাসকে বাসস্থানে রূপ দেওয়ার চিন্তাটা মাথায় আসে। কিন্তু তাঁদের দুজনের প্রচেষ্টায় খুব বেশি কিছু করা সম্ভব ছিল না। বাসটি বাসযোগ্য করে তুলতে বেশ অর্থের প্রয়োজন। মানুষের সাহায্য চান তাঁরা। ফলাফলে মাত্র আট মাসের মধ্যেই ওঠে আট হাজার ডলার। এর সঙ্গে ৭০-৮০ জন মানুষের শ্রমে দোতলা বাসটি রূপান্তরিত হয় ঘরহারাদের আশ্রয়স্থলে। এখন এই দ্বিতল বাসায় আছে ঘুমানোর জন্য ১২টি ব্যাংক, একটি লাউঞ্জ বা বসার ঘর আর একটি রান্নাঘর।  বর্তমানে ব্রিটেনের প্রায় তিন লাখ মানুষ ঘরহারা অবস্থায় বসবাস করছে। সবার জন্য না হলেও এই শীতে এদের অন্তত কয়েকজনকে সাহায্য করতে পেরে ভারি খুশি স্যামি আর জোয়ান।



মন্তব্য