kalerkantho


অন্য রকম

ইবারার জন্মদিনে

মাসুদ রানা আশিক

৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ইবারার

জন্মদিনে

১৫ বছর বয়সী রুবি ইবারার জন্মদিনে হাজির হয়েছিল কমসে কম হাজার দশেক মানুষ। ইবারার বাড়ি মেক্সিকোর সান লুই পাটোসি রাজ্যের লা খইয়া গ্রামে। ২০১৬ সালের ২৬ ডিসেম্বর ছিল ইবারার জন্মদিন। মেক্সিকোকে কোনো কিশোরীর ১৫তম জন্মদিন বেশ ঘটা করেই উদ্‌যাপন করা হয়। আর এই জন্মদিন উদ্‌যাপন উত্সবকে স্থানীয়ভাবে বলা হয় ‘কিনসেনেরা’। ইবারার বাবা ক্রেসেনসিও ইবারা ফেসবুকে মেয়ের জন্মদিন উপলক্ষে একটা ভিডিও আপলোড করে দাওয়াত দেন, ‘সবাই আমন্ত্রিত আমার মেয়ের জন্মদিনে। অনুষ্ঠানে থাকবে স্থানীয় ব্যান্ডের পরিবেশনা ও ঘোড়ার রেসের আয়োজন। আর এক বেলা খাবারের ব্যবস্থা তো আছেই। ’ কিন্তু এই ভিডিও যে ভাইরাল হয়ে যাবে, সেটাই বা কে জানত। এত মানুষ এই জন্মদিন আয়োজনে সাড়া দেবে কল্পনাও করেননি ক্রেসেনসিও দম্পতিও। আসলে ভিডিওতে গ্রামের সব মানুষকেই আমন্ত্রণ জানাতে চেয়েছিলেন।

কিন্তু এর উল্লেখ করেননি কোথাও। এমনকি ভিডিওটা সেট করেন ‘প্রাইভেটে’র বদলে ‘পাবলিক’ হিসেবে। ফলে যা হওয়ার তা-ই হলো। ভিডিওটি শুধু লা জায়া নয়, মেক্সিকোর বিভিন্ন এলাকা, এমনকি সীমান্তবর্তী আমেরিকার অনেক মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। ভাবা যায়, প্রায় আট লাখবার শেয়ার করা হয়েছিল ওটা! জন্মদিনের আয়োজনে ১২ লাখ মানুষ যেতে আগ্রহ প্রকাশ করে! ক্রেসেনসিও ভেবেছিলেন, সর্বোচ্চ ৮০০ মানুষ আসবে। মেক্সিকোয় তাদের খামারবাড়িতে জন্মদিনের অনুষ্ঠানে রুবি ইবারা এসেছিল গোলাপি রঙের পোশাক ও মাথায় টায়রা পরে। অনুষ্ঠানস্থলের পাশে একটা বিলবোর্ডে লেখা ছিল, ‘আমার ১৫তম জন্মদিনে আপনাদের স্বাগতম। ’

এত মানুষ আসতে শুরু করলে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় ইবারার পরিবারকে। পাঁচ ঘণ্টার পথ পাড়ি দিয়ে এই জন্মদিনে শামিল হয়েছিল এমন লোকের সংখ্যাও নেহাতই কম ছিল না। সবাই মিলে অনুষ্ঠানে মেতেছিল, নেচেছিল, গেয়েছিল। অবশ্য স্থানীয় একটি প্রতিষ্ঠান ভোজের খাবার সরবরাহ করায় ইবারার মা-বাবাকে দুশ্চিন্তায় পড়তে হয়নি বেশি একটা। জন্মদিনের আমন্ত্রণ নিয়ে ইন্টারনেটে তৈরি হয়েছিল মজার মজার ট্রল আর ভিডিও। তবে সবচেয়ে বড় চমক দিয়েছিল মেক্সিকান এয়ারলাইনস ইন্টারজেট। তারা সান লুইস পাটোসি রাজ্যে যাওয়ার সব বিমান টিকিট ৩০ শতাংশ ছাড় দিয়ে যাত্রীদের জন্মদিনে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছিল এভাবে, ‘আপনি কি রুবির ১৫তম জন্মদিনে যাচ্ছেন?’


মন্তব্য