kalerkantho

ইয়েমেনে নাম না জানা দেবতার মন্দির!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ মার্চ, ২০১৯ ১৩:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইয়েমেনে নাম না জানা দেবতার মন্দির!

ইয়েমেনে দুই হাজার বছরের পুরনো একটি ব্রোঞ্জ ফলক উদ্ধার করা হয়েছে যাতে খোদাই করে লিখিত রয়েছে একটি মন্দিরের নাম।

ফলক অনুযায়ী  'আততার হরমান' নামের দেবতাকে উৎসর্গ করা একটি মন্দিরের অস্তিত্ব ছিল যা হারিয়ে গেছে অনেক আগে। তবে পণ্ডিতরা এমন দেবতার নাম আগে কখনো শোনেননি।

ব্রোঞ্জের শিলালিপিটিতে সেবাইক ভাষায় লেখা রয়েছে: 'খাওলিয়ানের দুই সেবক 'ইলিমতা' ও খবিয়াত' বনার মালিক আততার হরমানকে ব্রোঞ্জের শিলালিপিসহ মন্দিরটি উৎসর্গ করছেন। তিনি যেন তাদের ছেলেদের এবং যারা তাতে যোগ দেবেন তাদেরকে রক্ষা করেন।' সেবাইক ভাষা থেকে এটি অনুবাদ করেছেন খ্রিশ্চিয়ান রবিন।

ফ্রেন্স ন্যাশনাল সেন্টার ফর সায়েন্টিফিক রিসার্চ-এর ইমেরিটাস গবেষক রবিন লাইভ সায়েন্সকে বলেন, 'ফলকটি এসেছে দেবতার কাছে উৎসর্গকৃত একটি মন্দির থেকে।'

রবিন আরো বলেন, 'বানা' মন্দিরের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত একটি শব্দ। এর আগে এই নামের দেবতা ও মন্দিরটি অজানা ছিল। কিছু নিদর্শন অনুযায়ী মন্দিরটি দেশটির রাজধানী সানার কাছাকাছি ছিল। রবিন আরো বলেন, তিনি বিশ্বাস করেন ফলকটি খ্রিষ্টপূর্ব প্রথম শতাব্দির।

ঐতিহাসিক রেকর্ড অনুযায়ী দুই হাজারেরও বেশি বছর আগে ইয়েমেনে প্রচুর রাজ্যের অস্তিত্ব ছিল। ওইসব রাজ্যের মানুষ বিভিন্ন দেবতায় বিশ্বাসী ছিলেন। 

সূত্র : ইয়াহু 

মন্তব্য