kalerkantho


সবিশেষ

স্বীকারোক্তি আদায়ে সাপের ভয়!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১১:০৫



স্বীকারোক্তি আদায়ে সাপের ভয়!

কথায় বলে সাপ দেখলে কে না ভয় পায়! তাই বলে স্বীকারোক্তি আদায়ে সাপের ভয়! হ্যাঁ, তেমনটিই ঘটেছে ইন্দোনেশিয়ায়। কথা বের করতে সন্দেহভাজন এক চোরের গায়ে সাপ জড়িয়ে দেয় পুলিশ। ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর এ নিয়ে ব্যাপক হৈচৈ শুরু হয়েছে। দুঃখ প্রকাশ করা হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে।

পুলিশের হাতে আটক ব্যক্তির গায়ে সাপ পেঁচিয়ে দিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের একটি ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ার পর বিষয়টি জানাজানি হয়। ভিডিওতে দেখা যায়, পাপুয়া অঞ্চলে পুলিশের একজন কর্মকর্তা আটক ব্যক্তির গায়ে একটি সাপ জড়িয়ে দিচ্ছেন, আর হাতকড়া পরা লোকটি ভয়ে চিত্কার করছে। পুলিশ সন্দেহ করেছিল যে ওই ব্যক্তি একটি মোবাইল ফোনসেট চুরি করেছে।

ভিডিওটি টুইট করেছেন মানবাধিকারবিষয়ক আইনজীবী ভেরোনিকা কোমন। তিনি দাবি করেছেন যে সম্প্রতি পুলিশ নাকি পাপুয়ার স্বাধীনতাপন্থী  এক আন্দোলনকারীকে আটক করার পর তাকে সাপসহ একটি সেলের ভেতরে রেখেছিল। ভিডিওতে একটি কণ্ঠ সন্দেহভাজন ওই চোরকে নানাভাবে ভয় দেখাতে শোনা যায়। কখনো বলা হচ্ছিল যে তার মুখে বা প্যান্টের ভেতরে সাপ ঢুকিয়ে দেওয়া হবে। জিজ্ঞাসাবাদের সময় সাপ ব্যবহারের কৌশলের পক্ষে বক্তব্য দিয়ে স্থানীয় পুলিশের প্রধান টন্নি আনন্দা সদায়া বলেছেন, সাপটি ছিল পোষা ও নির্বিষ। তবে এই ঘটনাকে তিনি অপেশাদার উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আমরা কড়া ব্যবস্থা নিয়েছি। পুলিশ ওই ব্যক্তিটিকে মারধর করেনি।’ সূত্র : বিবিসি।



মন্তব্য