kalerkantho


পিরামিডের ওপর একি কাণ্ড!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৪:০৭



পিরামিডের ওপর একি কাণ্ড!

এক ডেনিশ ফটোগ্রাফারকে খুঁজছে মিশর। সেখানকার পিরামিড দর্শন বিশ্বের পর্যটকদের কাছে স্বপ্নের ভ্রমণের মতো। পিরামিড ঘুরে ফিরে দেখতে পর্যটকদের যেকোনো ধরনের সহায়তা দেয় কর্তৃপক্ষ। বিনিময়ে ভ্রমণপিয়াসীদের কাছ থেকে সাধারণ ভব্যতা তো আশা করা যায়? কিন্তু এই ফটোগ্রাফার তার বান্ধবীকে নিয়ে গ্রেট পিরামিড অব গিজায় উঠে যা করেছেন তা মেনে নেয়া যায় না। ছবিতে তাদের আপত্তিকর অবস্থায় দেখা যাচ্ছে। সম্ভবত তারা পিরামিডে চড়ে সেখানে যৌনকর্মে লিপ্ত হয়েছেন এবং এ ঘটনা ফ্রেমবন্দিও করেছেন। এমন আপত্তিকর কাজের অপরাধে তাদের খুঁজছে মিশরের কর্তৃপক্ষ। 

আন্দ্রিয়াস হিদ নামের একজন ইউটিউবে ভিডিও পোস্ট করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে তিনি এবং তার বান্ধবী পিরামিডে চড়েছেন। কায়রোর তিনটি সর্বোচ্চ গ্রেট পিরামিডের একটিতে উঠেছিলেন তারা। পরে দেখা যায় তারা কাপড় খুলে ফেলছেন। হিদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি স্থিরচিতে দেখে বোঝাই যাচ্ছে, তারা দুজন যৌনকর্মে জড়িয়ে পড়েছেন। 

এনবিসি'র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মিশরের মিনিস্ট্রি অব অ্যান্টিকিউটিস ইতিমধ্যে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে এ ঘটনার মাধ্যমে তারা 'নৈতিকতাবোধের খর্ব' করা হয়েছে। এ ঘটনা তদন্তে অ্যাটর্নি জেনারেলের দৃষ্টি আকর্ষণও করা হয়েছে। তবে অ্যান্টিকিউটিস বিভাগের সাবেক মন্ত্রী এবং গিজা প্ল্যাটুর সাবেক ডিরেক্টর জেনারেল জাহি হাওয়াস জানান, এ ছবিটাকে ভুয়া বলে মনে হচ্ছে। 

এই পুরাতত্ত্ববিদ আরো জানান, এত রাতে পিরামিডে চড়ার জন্যে কেউ ভেতরে প্রবেশ করতে পারবেন না। এটা শতভাগ ফটোশপ করা ছবি। তাছাড়া পিরামিডের ওপর যে পাথরখণ্ড দেখা যাচ্ছে তা অনেক ছোট বলে মনে হচ্ছে। তবে এমন অনন্য পুরাতাত্ত্বিক নিদর্শনে চড়ে এমন কাজের জন্যে যদি স্থাপনার কোনো ক্ষতি হয়ে থাকে তবে তার জন্যে দুজনকে শাস্তিভোগ করতে হবে। 

এ ছবি এবং ভিডিওতে অনেকে মন্তব্য করেছেন। কেউ একে 'সম্মানহানীকর এবং মুর্খদের কাজ' বলেছেন। আরেকজন তাদের জেলে দেখতে চান বলে মন্তব্য করেছেন। 

তবে ডেনিশ ফটোগ্রাফার জানিয়েছেন, তার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল গ্রেট পিরামিড অব গিজায় চড়ে সেখানে কিছু সময়কে ক্যামেরাবন্দি করা। তবে তিনি সেক্স করার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। 
সূত্র: ইয়াহু 



মন্তব্য