kalerkantho


কমোডে আস্ত অজগর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ নভেম্বর, ২০১৮ ২০:০৩



কমোডে আস্ত অজগর

প্রতীকী ছবি।

দু’মাস আগেও একবার দেখেছিলেন। অফিসের সবাইকে বলেছিলেনও সেই কথা। কিন্তু কেউ গুরুত্ব দেওয়া তো দূরে থাক, সবাই হাসি-মস্করা করেছিলেন ওই বিষয় নিয়ে। এমনকি অফিসের বসও সুযোগ পেলেই খোঁটা দিতেন। কিন্তু সেই ঘটনাই সত্যি হলো।

অফিসের শৌচাগারে ঢুকে সবে কমোডে বসেছেন তারদসক কেওয়াপংপন। আচমকাই ভেতর থেকে কী যেন লাফিয়ে উঠে কামড়ে ধরল। সঙ্গে সঙ্গে লাফ দিয়ে উঠে পড়লেন তিনি। কিন্তু তখনো যে কামড়ে ধরে ঝুলে আছে সেই ভয়ঙ্কর প্রাণী। কোনো রকমে ছাড়িয়ে নিলেও রক্তে ভেসে গেল গোটা শৌচাগার।

চিৎকার শুনে সহকর্মীরা ছুটে যান শৌচাগারে। কমোডে উঁকি দিতেই হাড় হিম হয়ে গেল সবার। এ যে জলজ্যান্ত অজগর। কমোডের ভেতরে তেনো মুখ বের করে নড়াচড়া করছে।

এ ধরনের ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটেছে থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাঙ্কককে। সেখানকার একটি বেসরকারি অফিসের কর্মী ৪৫ বছর বয়সী তারদসক কেওয়াপংপন-এর যৌনাঙ্গে কামড়ে দেয় ওই অজগর।

সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তার যৌনাঙ্গে ১৫টি সেলাই দেওয়া হয়েছে। এখনো আতঙ্ক কাটিয়ে উঠতে পারেননি তিনি।

অন্যদিকে কেওয়াপংপনের সহকর্মীরা তখনো অজগরকে বাগে আনার চেষ্টা করছেন। অনেক চেষ্টা করার পর কমোড থেকে বের করা যায় সাপটি। তার পর একটি লাঠি এগিয়ে দিতেই অজগর পেঁচিয়ে ধরে সেই লাঠি। ওই ভাবেই তাকে বাইরে বের করে নিয়ে আসেন কর্মীরা। পরে বন দপ্তরে খবর পাঠানো হলে তারা এসে অজগরটিকে নিয়ে যায়।



মন্তব্য