kalerkantho


হাঁটুন, সাইকেল চালান প্রাকৃতিক পরিবেশে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ১১:১৪



হাঁটুন, সাইকেল চালান প্রাকৃতিক পরিবেশে

প্রাকৃতিক পরিবেশে হেঁটে বা সাইকেল চালিয়ে প্রাত্যহিক ভ্রমণে মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতি হতে পারে। এক নতুন গবেষণায় বিষয়টি উঠে এসেছে।

প্রাকৃতিক পরিবেশ বলতে বুঝানো হয়েছে সরকারি ও ব্যক্তিগত অঙ্গণ বুঝানো হয়েছে যা সবুজ অথবা নীল  প্রাকৃতিক উপাদানের উপস্থিতি রয়েছে যেমন রাস্তার গাছ, বন, নগর পার্ক এবং প্রাকৃতিক উদ্যান বা  সংরক্ষণাগার। সব ধরনের জলজ প্রাণি বা পোকামাকড়ও এর অন্তর্ভুক্ত।

মানসিক স্বাস্থ্য ও শারীরিক নিষ্ক্রিয়তা শহুরে জীবনের সঙ্গে যুক্ত দুটি প্রধান জনস্বাস্থ্য সমস্যা। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা ও স্বাস্থ্যকর শহর তৈরিতে একটি শক্তিশালী হাতিয়ার হতে পারে নগর নকশা। এর জন্য সাইকেল চালানো ও হাঁটার জন্য প্রাকৃতিক ভ্রমণ রুটগুলিতে বিনিয়োগ করার কথা বলেছেন ইউনিভার্সিটি অব বার্সেলোনা'র অধ্যাপক মার্ক নুইউয়েনহিজেন।

প্রকাশিত গবেষণার জন্য প্রায় ৩৬ হাজার অংশগ্রহণকারী ছিল যারা তাদের প্রাত্যহিক ভ্রমণ  অভ্যাস ও তাদের মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কিত প্রশ্নের  উত্তর দিয়েছে।

গবেষণায় দেখানো হয়েছে যে প্রাকৃতিক পরিবেশে দৈনন্দিন ভ্রমণকারীরা গড় ২.৭৪ পয়েন্ট বেশি মানসিক স্বাস্থ্য স্কোর পেয়েছেন যারা প্রাকৃতিক পরিবেশে অপেক্ষাকৃত কম ভ্রমণ করেন তাদের চেয়ে। শুধু তাই নয়, প্রাকৃতিক পরিবেশে দৈনন্দিন ভ্রমণকারীরা শারীরিকভাবেও বেশি শক্তিশালী বলে গবেষক দলটি জানিয়েছে।

গবেষণায় আরো বলা হয়েছে, পূর্ববর্তী গবেষণা কাজে  জানা যায় যে শহুরে পরিবেশে ভ্রমণকারীদের চেয়ে প্রাকৃতিক পরিবেশে প্রাত্যহিক ভ্রমণকারীরা তাদের মানসিক ও শারীরিক পীড়ন কমাতে পারে আর উন্নতি ঘটাতে পারে মানসিক স্বাস্থ্যের। 



মন্তব্য