kalerkantho


গুলি খেয়ে রাস্তায় তড়পাচ্ছিল তাব্বু, লোকজন করছিল ভিডিও!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২২:২৮



গুলি খেয়ে রাস্তায় তড়পাচ্ছিল তাব্বু, লোকজন করছিল ভিডিও!

রাস্তায় পড়ে আছে তাব্বুর রক্তাক্ত লাশ

দিন দুপুরে আগে থেকে ওঁৎ পেতে ছিল ঘাতকরা। অপরাধী থেকে নেতা বনে গিয়েছিল তাবরেজ আলম ওরফে তাব্বু। তাকে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করে হত্যা করা হয় গত শুক্রবার।

শরীরে চারটি গুলি নিয়ে রাস্তায় পড়ে তড়পাচ্ছিল সে। এসময় তার আশপাশে শ দুয়েক লোক ছিল। কেউ কেউ তার কাছেও এগিয়ে যায়- তবে তাকে উদ্ধার করে হাসপালে নেওয়ার জন্য নয়- তারা তার কাছে গিয়েছিল মোবাইল ফোনে ভাল করে ভিডিও ও স্টিল ছবি নিতে।

সবার চোখের সামনেই ছটফটাতে ছটফটাতে মারা যায় একসময়ের সন্ত্রাসী তাবরেজ আলম।

ভারতের বিহারের পাটনা এলাকার এই ঘটনায় শনিবার জাহানাবাদ থেকে এক সন্দোহভাজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। একইসঙ্গ হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত মোটরবাইকটিও আটক করা হয়েছে।

শুক্রবার যখন গুলি করে হত্যা করা হয় তাব্বুকে তখন সে তার প্রাইভেট কারে উঠছিল। তবে গাড়িতে আর ওঠা হয়নি- রাস্তাই হয় তার মৃত্যুশয্যা।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, দুপুর আড়াইটার দিকে একটি নম্বরপ্লেটবিহীন নতুন স্কুটিতে করে দুই যুবক স্থানীয় রায়জির চায়ের দোকানের সামনে আসে। তাদের মাথায় হেলমেট ছাড়াও মুখে মাস্ক লাগানো ছিল।

ওদিকে, চায়ের দোকানে আগে থেকেই কিছু লোক উপস্থিত ছিল। বাইকের আগন্তুকরা এসময় ডানে বায়ে নজর রাখছিল। ঠিক ২টা ৫০ মিনিটে তাব্বু তার গাড়ির পাশে আসে। এসময় বাইকটি এগিয়ে যায় এবং গাড়ির সমান্তরালে দাঁড়ায়। ওদিকে তাব্বু গাড়িতে উঠছিল। হঠাৎ পাশ থেকে তার বুকে তিনটি গুলি করে বাইকের পেছনে থাকা দুর্বৃত্ত।

গুলির শব্দে ঘটনাস্থলে হুলস্থুল বেঁধে যায়। 

গুলি খেয়ে তাব্বু রাস্তায় লুটিয়ে পড়লে বাইক থেকে নেমে হন্তারক আরো একটি গুলি করে তার পেটে। এরপর মোটরসাইকেলের পেছনে গিয়ে ওঠে সে। চালক দ্রুত পালাতে থাকে তাকে নিয়ে। কয়েকজন লোক তাদের পিছু ধাওয়া করতে চেয়েছিল অবশ্য। কিন্তু খুনিরা পিস্তল উঁচিয়ে ভয় দেখায় এবং নির্বিঘ্নে পালিয়ে যায়। 

পুলিশ জানিয়েছে, তাব্বু নিজে বেশ কিছু অপরাধে জড়িত ছিল। জমি এবং আধিপত্য বিস্তারের বিরোধ থেকে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে।

সূত্র:জাগরন.কম 



মন্তব্য