kalerkantho


প্রাসাদ-মহলের দুয়ার খুলে দিলেন 'সমকামী রাজকুমার' (ভিডিও)

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৬:২৮



প্রাসাদ-মহলের দুয়ার খুলে দিলেন 'সমকামী রাজকুমার' (ভিডিও)

ভারতে 'সমকামী রাজকুমার' হিসেবে পরিচিত মানবেন্দ্র সিং গোহিল

ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের এক ঐতিহাসিক রায়ে দেশটিতে বৈধতা পেয়েছে সমকামিতা। এ নিয়ে দেশটির সমকামি সমাজে আনন্দ-উচ্ছ্বাস-উদযাপন চলছেই। ভারতে দীর্ঘদিন ধরে দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারায় সমকামিতাকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসাবে বর্ণনা করা হয়েছিল। কিন্তু এখন থেকে সমকামিতা আর অপরাধ নয়। গত ৬ সেপ্টেম্বর ভারতের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ সেই ৩৭৭ ধারা বাতিল করে দেন।

কিন্তু বেশ আগে থেকেই ভারতে সুপরিচিত এক ব্যক্তি মানবেন্দ্র সিং গোহিল। তিনি ভারতের 'সমকামী প্রিন্স' বা 'সমকামী রাজকুমার' হিসেবেই সুপরিচিত। তিনি আসলেই এক রাজপরিবারের সন্তান। বলেন, আমি যে সমকামী তা আমাদের রাজপরিবারের গোপনীয়তা হিসেবেই সুরক্ষিত ছিল। কিন্তু মানুষ এবং মিডিয়ার অর্থাৎ গোটা দুনিয়ার কাছে যখন আমি নিজের পরিচয় প্রকাশ করলাম তখন সবার প্রতিক্রিয়া দেখলাম। রাজপিপলার মানুষ আমার কুশপুত্তলিকা জ্বালিয়ে দিলো। তারাই আমাকে রাজাপুত্র হিসেবে সম্মান করতেন। তারা আমার ওপর ছায়া হয়ে পাহাড়া দিতেন। আমাকে আইকন মনে করতেন। 

প্রিন্স আরো বললেন, গুজরাটের একটি অঞ্চল রাজপিপলা। আমি এখানকার ক্রাউন প্রিন্স। সম্ভবত আমি এই পৃথিবীর প্রথম প্রিন্স যিনি তার সমকামী বৈশিষ্ট্যের কথা প্রকাশ করেছেন। 

২০০৬ সালে নিজের পরিচয় প্রকাশের পর ব্যাপক বৈপরিত্যের শিকার হন তিনি। এত কিছুর পরও তিনি ভারতের সমকামী সম্প্রদায়ের অধিকার আদায়ের পথে সবার আগে ছিলেন। এখন তিনি তার পূর্বপুরুষদের প্রাদাস আর মহল খুলে দিয়েছেন সমকামীদের জন্যে। 

আমার রাজবংশের এসব স্থাপনাকে আমি এলজিবিটিকিউএ সেন্টারে পরিণত করবো সিদ্ধান্ত নিয়েছি, বলেন রাজকুমার। এ বৈশিষ্ট্যের জন্যে আমাকে পরিবার থেকেও বিচ্ছিন্ন করা হয়। সমকামী হিসেবে নিজের পরিচয় প্রকাশের পর রাজবংশের সম্পত্তি থেকেও বঞ্চিত করা হয় আমাকে। সমকামীদের সামাজিক এবং অর্থনৈতিক অধিকার আদায়ের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামি আমি। 

বিবিসি'র এই ভিডিওটি যখন প্রকাশ পায় তখন পর্যন্ত সমকামী ভারতে অপরাধ বলে গণ্য এবং সাজা ১০ বছরের জেল। তখন সুপ্রিম কোর্ট এ সংক্রান্ত আইনটি পুনর্বিবেচনার কথা ভাবছে। সমকামীরা আশায় ছিলেন তারা সমাজে গ্রহণযোগ্য হবেন। তাদের দীর্ঘ প্রতিক্ষার অবসান ঘটেছে অবশেষে, এমনটাই মনে করেন তারা। 

সূত্র: বিবিসি 



মন্তব্য