kalerkantho


৩২০০ বছরের পুরনো সমাধিতে প্রাচীনতম পনিরের সন্ধান!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ আগস্ট, ২০১৮ ১৪:৩২



৩২০০ বছরের পুরনো সমাধিতে প্রাচীনতম পনিরের সন্ধান!

এ দুনিয়ার সবচেয়ে পুরনো আমলের পনির আবিষ্কার করলেন। অর্থাৎ, এত পুরনো আমলের পনির এর আগে মেলেনি। মিশরের ৩২০০ বছরের পুরনো একটি সমাধিস্থলের ভেতর থেকে একেবারে নিরেট পনির পাওয়া যায়। 

খ্রিস্টপূর্ব ১৩ শো অব্দে মিশরের মেমফিসের মেয়র ফামেসের সমাধিস্থলের মধ্যে এই পনির ছির। ইতালির কাতানিয়া ইউনিভার্সিটির রসায়ন বিজ্ঞানী এনরিকো গ্রেকো এসব তথ্য জানান। 

আসলে এই সমাধিস্থল সর্বপ্রথম খনন করা হয় ১৮৮৫ সালে। কিন্তু তা বালুতে ঢেকে যায় আবার। পরে আবারো ২০১০ সালে একে খুঁজে বের করা হয়। তার কয়েক বছর বাদেই পুরাতত্ত্ববিদরা ওই সাইটে ভাঙা তৈজসপত্র দেখতে পান। এর মধ্যে একটি বয়ামে সাদাটে জিনিস পেয়েছিলেন। আরো ছিল কাপড়। সেই কাপড়ে হয়তো বয়াম মোড়ানো ছিল। 

সাদাটে পদার্থ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়। লিকুইড ক্রোমাটোগ্রাফি এবং ম্যাস স্পেক্টোমেট্রি করা হয়। দেখা যায়, ওটা দুগ্ধজাত খাবার। এটা বানানো হয়েছিল গরু কিংবা ছাগল কিংবা ভেড়ার দুধ দিয়ে। আরো কিছু পরীক্ষায় বোঝা যায়, ওটা তরল নয় বরং কিছু শক্ত পদার্থ ছিল। আর যুক্তি ও পরীক্ষার মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, ওটা নিরেট পনিরের টুকরা। 

এর মধ্যে থাকা অন্যান্য পেপটাইডের নমুনা পরখ করে আরো জানা গেছে, দুধে প্রয়োগ করা হয়েছিল ব্রুসেলা মেলিটেনসিস। এটা এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া যার কারণে ব্রুসেলোসিস হয়। অ্যানালিটিক্যাল কেমিস্ট্রি জার্নালে প্রকাশিত গবেষণাপত্র এ তথ্যই জানানো হয়েছে। 

ওই সময় এক প্রাণঘাতী রোগ প্রাণীদের থেকে ছড়িয়ে পড়ে মানুষের মাঝে। এটা ঘটেছিল অনিরাপদ দুগ্ধজাত খাবার খেয়ে। 
সূত্র: এনডিটিভি 



মন্তব্য